ধেয়ে আসছে ঘূর্ণিঝড় ‘গুলাব’, আঘাত হানতে পারে রোববার

বঙ্গোপসাগরে সৃষ্ট একটি গভীর নিম্নচাপ ঘূর্ণিঝড়ে পরিণত হতে যাচ্ছে বলে সতর্ক করেছে বাংলাদেশ আবহাওয়া অধিদফতর। শনিবার (২৫ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যা অথবা রাত নাগাদ এটি ঘূর্ণিঝড়ে পরিণত হতে পারে। বিশ্ব আবহাওয়া সংস্থার আঞ্চলিক কমিটি জানিয়েছে, এ ঘূর্ণিঝড়টি পরিণত হলে এটির নাম হবে ‘গুলাব’। এবার ঝড়টির নামকরণের প্রস্তাব করেছে পাকিস্তান। খবর বিবিসি বাংলার। বাংলাদেশ আবহাওয়া অধিদফতরের আবহাওয়াবিদ বজলুর রশিদ জানিয়েছেন, তারা মোটামুটি নিশ্চিত যে নিম্নচাপটি ঘূর্ণিঝড়ে পরিণত হতে যাচ্ছে। তবে এটা হবে একটি স্বল্প শক্তির ঘূর্ণিঝড়, যার গতিবেগ হবে ঘণ্টায় ৬০ থেকে ৭০ কিলোমিটার পর্যন্ত। তিনি বলেন, ‘এটি মূলত ভারতের উড়িষ্যায় আঘাত হানবে। বাংলাদেশে ঝড়ের প্রভাবে উপকূলীয় অঞ্চলে বৃষ্টি হতে পারে।’ এদিকে, বঙ্গোপসাগরে নিম্নচাপের প্রভাবে দেশের বিভিন্ন স্থানে বৃষ্টি ও বজ্রসহ বৃষ্টি শুরু হয়েছে। শনিবার বিকেলে রাজধানীতে মুষলধারে বৃষ্টি ও বজ্রপাত হয়েছে। গভীর নিম্নচাপের কারণে আবহাওয়া অধিদফতর চট্টগ্রাম, কক্সবাজার, মংলা ও পায়রা সমুদ্রবন্দরকে এক নম্বর দূরবর্তী সতর্ক সঙ্কেত দেখিয়ে যেতে বলেছে। শনিবার বিকেলে গভীর নিম্নচাপটি সর্বশেষ চট্টগ্রাম থেকে ৪৮০ কিলোমিটার, কক্সবাজার থেকে ৪১৫ কিলোমিটার এবং ভারতের উড়িষ্যা উপকূল তেকে ৫১০ কিলোমিটার দূরে অবস্থান করছিল। অন্যদিকে, এ সংক্রান্ত একটি আবহাওয়ার বুলেটিনে ভারতের আবহাওয়া অধিদফতর জানিয়েছে, শনিবার মধ্যেই নিম্নচাপটির ঘূর্ণিঝড়ে পরিণত হওয়ার আশঙ্কা রয়েছে। ঘূর্ণিঝড়টির গতি-প্রকৃতি দেখে মনে হচ্ছে, রোববার রাত নাগাদ এটি অন্ধ্র প্রদেশের উত্তরাঞ্চল এবং উড়িষ্যা দক্ষিণাঞ্চল অতিক্রম করবে।

আবহাওয়া এর আরো খবর