কোপা ডেল রে’র শেষ ১৬ তে রিয়াল মাদ্রিদ, বার্সেলোনা

 লোয়ার টায়ারের দুই দলের সাথে কষ্টার্জিত জয়ে শেষ পর্যন্ত কোপা ডেল রে’র শেষ ১৬ নিশ্চিত করেছে রিয়াল মাদ্রিদ ও বার্সেলোন। এদিকে তৃতীয় বিভাগের দল এ্যাথলেটিকো বেলিয়ারেসের কাছে ২-১ গোলে পরাজিত হয়ে বিদায় নিয়েছে সেল্টা ভিগো।
প্রিমিয়ার ডিভিশনের দল আলকোয়ানোর বিপক্ষে ৩-১ গোলের জয় পেলেও মাদ্রিদকে এই ম্যাচে এগিয়ে যেতে দারুন প্রতিরোধের মুখে পড়তে হয়েছে। এই দলের কাছেই ঠিক এক বছর আগে এই রাউন্ড অফ ৩২’এ পরাজিত হয়ে বিদায় নিতে হয়েছিল গ্যালাকটিকোদের। অপর ম্যাচে পিছিয়ে পড়েও শেষ পর্যন্ত তৃতীয় টায়ারের দল লিনারেস দেপোর্তিভোকে ২-১ গোলে পরাজিত করেছে বার্সেলোনা। 
এল কোলাও স্টেডিয়ামে ৪৮০০ সমর্থকের সামনে ৩৯ মিনিটে ডিফেন্ডার এডার মিলিটাওয়ের গোলে এগিয়ে যায় মাদ্রিদ। কিন্তু এরপর দারুন আগ্রাসী হয়ে ওঠা স্বাগতিকরা একের পর এক আক্রমন করতে থাকে। তারই ধারাবাহিকতায় ৬৬ মিনিটে ক্যাসেমিরো ও মিলিটাওকে কাটিয়ে কার্লিং শটে ডানি ভেগা স্বাগতিকদের সমতায় ফেরান। ৭৬ মিনিটে মার্কো আসেনসিওর শট আটবকানোর সাধ্য ছিল না আলকোয়ানো গোলরক্ষক হোসে ফিগারাসের। এর দুই মিনিট পর ফিগারেসের আত্মঘাতি গোলে মাদ্রিদের জয় নিশ্চিত হয়। 
বার্ষেলোনা ফরোয়ার্ড ওসমানে ডেম্বেলে ও ফেরান জুটগালার গোলে লিনারেসের বিপক্ষে জয় কষ্টার্জিত জয় নিশ্চিত হয়। ১৯ মিনিটে হুগো ডিয়াজের গোলে স্বাগতিক লিনারেস এগিয়ে গিয়েছিল। ৬৩ মিনিটে ডি বক্সের বাইরে থেকে শক্তিশালী শটে সমতা ফেরান ডেম্বেলে। ৬ মিনিট পর জুটগালার গোলে বার্সেলোনা অস্বস্তিদায়ক বিদায় থেকে রক্ষা পায়। 
বার্সেলোনায় ফেরার পর এই ম্যাচে প্রথমবারের মত মাঠে নেমেছিলেন অভিজ্ঞ ডানি আলভেস। ৩৮ বছর বয়সী এই ব্রাজিলিয়ান রাইট ব্যাক ২০০৮-২০১৬ সাল পর্যন্ত বার্সেলোনায় কাটিয়েছেন। এই সময়ে মধ্যে তিনটি চ্যাম্পিয়ন্স লিগ শিরোপাসহ ২৩টি শিরোপা জিতেছেন। ম্যাচ শেষে আলভেস বলেছেন, ‘এটা আমার জন্য বিশেষ একটি দিন। এই ক্লাবে ফিরে আসতে পেরে এবং আবারো কোপার মাধ্যমে মাঠে নামারা সুযোগ পেয়ে আমি সত্যিই গর্বিত। এই অনুভূতি ভাষায় প্রকাশ করা যায়না।’
এর আগে রাউন্ডে গেতাফেকে ৫-০ গোলে পরাজিত করে বিস্ময়ের জন্ম দেয়া বেলিয়ারেস সেল্টার বিপক্ষে ছিল আগ্রাসী। স্প্যানিশ এ্যাটাকার মানেল মার্টিনেজের দুই গোলে কাল তাদের জয় নিশ্চিত হয়। মায়োর্কার দ্বীপরাজ্যে নিজেদের ঘরের মাঠে ১৭ মিনিটে কর্ণার থেকে হেডের সাহায্যে স্বাগতিকদের এগিয়ে দেন মার্টিনেজ। বদলী খেলোয়াড় ব্রায়িস মেনডেজ ৬৭ মিনিটে সেল্টার হয়ে সমতা ফেরান। কিন্তু ৭৬ মিনিটে আবারো মার্টিনেজের হেডে বেলিয়ারেসের জয় নিশ্চিত হয়। 
দিনের আরেক ম্যাচে ডেনিশ চেরিশেভের স্টপেজ টাইমের গোলে ভ্যালেন্সিয়া দ্বিতীয় বিভাগের দল কার্টাজেনাকে ২-১ গোলে পরাজিত করেছে। মিকেল ওয়ারজাবালের জোড়া গোলে রিয়াল সোসিয়েদাদ ৩-২ গোলে লেগানেসকে, রিয়াল বেটিস ৩-০ গোলে ভায়াদোলিদকে এবং মায়োর্কা ২-১ গোলে এইবারকে পরাজিত করে শেষ ১৬ নিশ্চিত করেছে।

খেলা এর আরো খবর