রোনালদোর হ্যাটট্রিকে লুক্সেমবার্গকে উড়িয়ে দিল পর্তুগাল

কাতার বিশ্বকাপের বাছাইপর্বের ম্যাচে সময়ের অন্যতম সেরা ফুটবল তারকা ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোর হ্যাটট্রিকে লুক্সেমবার্গকে উড়িয়ে দিয়ে পর্তুগাল। মঙ্গলবার রাতে স্টেডিও আলগ্রাভ স্টেডিয়ামে এদিন ৫-০ গোলে জিতেছে ফার্নান্দো সান্তোসের শিষ্যরা। রোনালদোর হ্যাটট্রিকের পাশাপাশি একটি করে গোল করেছেন ব্রুনো ফার্নান্দেজ এবং জাও পাউলিনহো।
 
ঘরের মাঠে ম্যাচের শুরু থেকে বল দল এবং নিয়ন্ত্রণে একচ্ছত্র আধিপত্য বিস্তার করে পর্তুগিজরা। আর চাপ ধরে রেখেই প্রধমার্ধের অষ্টম মিনিটেই প্রথম গোলের দেখা পান সিআর সেভেন। এ সময় পেনাল্টি থেকে গোল করে দলকে এগিয়ে দেন রোনালদো। বার্নার্দো সিলভাকে বক্সের ভেতরে ফাউল করায় পেনাল্টি পেয়েছিল পর্তুগাল।
 
দুই মিনিট পর আবার পেনাল্টি পায় তারা। বক্সের ভেতর লুক্সেমবার্গ গোলরক্ষক এন্থনি মরিস রোনালদোকে ফাউল করেন। সফল স্পট কিকে দলকে দ্বিতীয়বারের মতো এগিয়ে দেন ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড তারকা।
 
প্রথমার্ধে আরও একটি গোলের দেখা পায় পর্তুগাল। ম্যাচে ১৭তম মিনিটের খেলায় সপ্তদশ মিনিটে খেলায় সিলভার থ্রু বল ধরে নিচু শটে ঠিকানা খুঁজে নেন ফার্নান্দেস। ফলে ৩-০ গোলে এগিয়ে যায় পর্তুগাল। প্রথমার্ধের পরবর্তী সময়ে আর কোনো গোল না হলে এই ব্যবধানেই বিরতিতে যায় সান্তোসের শিষ্যরা।
 
দ্বিতীয়ার্ধের খেলায় গোলের দেখা পেতে মরিয়া হয়ে উঠে সফররত লুক্সেমবার্গ। শুরুর দিকে বেশ কয়েকটা আক্রমণও করেছিল তারা। কিন্তু গোল পাওয়া হয়নি। উল্টো দিকে ম্যাচের ৬৯তম মিনিটে পেনাল্টি স্পটের কাছ থেকে রোনালদোর দুর্দান্ত বাইসাইকেল কিক কোনোমতে কর্নারের বিনিময়ে ঠেকান মরিস।ফার্নান্দেসের সেই কর্নার থেকেই চমৎকার হেডে জাল খুঁজে নেন জোয়াও পাউলিনহো।
 
দল চার গোলে এগিয়ে গেলেও নিজের তৃতীয় গোলের জন্য মাটি কাপড়ে খেলছিলেন ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড তারকা রোনালদো। শেষ পর্যন্ত সফল হয়েছেন তিনি। ম্যাচের নির্ধারিত সময় শেষ হওয়ার তিন মিনিট আগে রুবেন নেভেসের কাছ থেকে পাওয়া বলে দারুণ হেডে নিজের হ্যাটট্রিক পূর্ণ করেন তিনি।
 
এ জয়ের ফলে ইউরোপীয় অঞ্চলের বিশ্বকাপ বাছাইয়ে ‘এ’ গ্রুপে ৬ ম্যাচে ১৬ পয়েন্ট নিয়ে দুই নম্বরে রয়েছে পর্তুগাল। তাদের চেয়ে একটি ম্যাচ বেশি খেলা সার্বিয়া ১৭ পয়েন্ট নিয়ে সবার উপরে অবস্থান করছে। ফলে পরের ম্যাচ জিতলেই পয়েন্ট শীর্ষে উঠে আসবে পর্তুগাল।

খেলা এর আরো খবর