যুক্তরাষ্ট্রে শিশুদের করোনা সংক্রমণ বেড়েছে ২৪০ শতাংশ: গবেষণা

যুক্তরাষ্ট্রে গত জুলাই মাসের পর থেকে শিশুদের মাঝে করোনা সংক্রমণ ‘দ্রুত’ গতিতে বেড়েছে বলে জানিয়েছে আমেরিকান অ্যাকাডেমি অব পেডিয়াট্রিকস (এএপি)। আন্তর্জাতিক গণমাধ্যম সিএনএন’র এক প্রতিবেদনে এ তথ্য উল্লেখ করা হয়েছে।
 
সংস্থাটির এক গবেষণার তথ্য মতে, গত সপ্তাহে যুক্তরাষ্ট্রে ২ লাখ ৪৩ হাজার ৩৭৩ জন শিশুর শরীরে করোনা ভাইরাসের উপস্থিতি শনাক্ত হয়েছে। তবে এটা তার আগের সপ্তাহের চেয়ে কম। আগের সপ্তাহে ২ লাখ ৫১ হাজার ৭৮১ জন শিশুর শরীরে করোনা শনাক্ত হয়।
 
তবে গত জুলাই মাসের তুলনায় শিশুদের করোনা আক্রান্তের হার ২৪০ শতাংশ বেড়েছে। গত জুলাই মাসে ৭১ হাজার ৭২৬ জন শিশু করোনা আক্রান্ত হয়েছিল।
 
সংস্থাটি এক বিবৃতিতে জানায়, ‘গত গ্রীষ্মের শুরুতে করোনা সংক্রমণ কমার পর শিশুদের সংক্রমণের হার দ্রুত গতিতে বাড়তে থাকে। গত দুই সপ্তাহে ৫ লাখ শিশুর শরীকে করোনা শনাক্ত করা হয়।’
 
সংস্থাটি আরও জানায়, যুক্তরাষ্ট্রে পুরোদমে স্কুল শুরু হওয়ার পর থেকে শিশুদের মাঝে এই করোনা সংক্রমণের হার বাড়তে থাকে। যদিও বিশেষজ্ঞরা শিশুদের সংক্রমন থেকে রক্ষার জন্য প্রাপ্ত বয়স্কদের ভ্যাকসিন দেওয়ার পরামর্শ দেন। কারণ ১২ বছর কম বয়সীরা ভ্যাকসিন নেওয়ার উপর্যুক্ত নয়।
 
এএপি জানিয়েছে, যুক্তরাষ্ট্রে মঙ্গলবার পর্যন্ত সর্বমোট ৫.৩ মিলিয়ন শিশু করোনা আক্রান্ত হয়েছে এবং দেশটির মোট করোনা আক্রান্তদের মধ্যে ২৯ শতাংশই শিশু।
 
প্রসঙ্গত, যুক্তরাষ্ট্রে ১২ বছরের বেশি বয়সী জনসংখ্যার প্রায় ৬৩ শতাংশ লোককে দুই ডোজ করে ভ্যাকসিন দেওয়া সম্পন্ন হয়েছে।
 
গবেষণার তথ্য মতে, করোনা আক্রন্তদের মধ্যে বয়স্কদের চেয়ে শিশুরা কম গুরুতর রোগে আক্রান্ত হচ্ছে বা কম মারা যাচ্ছে। রাষ্ট্রীয় তথ্য মতে, করোনা আক্রান্ত শিশুদের মধ্যে মাত্র ১.৪ থেকে ৪ শতাংশকে হাসপাতালে ভর্তি করা লাগছে।

আন্তর্জাতিক এর আরো খবর