দেশে লকডাউনের বিষয়ে যা বললেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী

দেশে লকডাউনের চিন্তাভাবনা নেই বলে জানিয়েছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ. কে. আব্দুল মোমেন। তিনি বলেন, ‘দেশে করোনা সংক্রমণ বাড়ার কারণে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার আহ্বান জানানো হয়েছে। একই সঙ্গে গণপরিবহনে ভিড় কমানোর চেষ্টা করা হচ্ছে।’
 
রোববার দুপুরে শেখ রাসেল জাতীয় গ্যাস্ট্রোলিভার ইন্সটিটিউট হাসপাতালে ঢাকায় নিযুক্ত বিদেশি রাষ্ট্রদূতগণের কোভিড-১৯ টিকার বুস্টার ডোজ প্রদানের উদ্বোধনকালে পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কথা বলেন।
 
আব্দুল মোমেন বলেন, ‘বিদেশ যাওয়া আসার বিষয়ে আমরা সকলকেই নিরুৎসাহিত করছি। বিশেষ করে আমাদের জনসাধারণকে বাঁচাতে বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যে ভ্রমণে স্বাস্থ্য নিরাপত্তা জোরদার করা হচ্ছে।’
 
পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘ভালো খবর হচ্ছে ওমিক্রনের আক্রান্তদের মৃত্যুহার অনেক কম। অনেক মানুষ বেশি সাবধান থাকতে চায়, তাই তারা লকডাউন চাচ্ছেন। কোভিড-১৯ মহামারি আমাদের উপলব্ধি করিয়েছে এটিকে একক দেশ হিসেবে আমরা একা সামলাতে পারব না। এ চ্যালেঞ্জ আমাদের একে অন্যের সহযোগিতায় মোকাবিলা করতে হবে।’
 
পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘আমি খুব খুশি-আমরা বিশেষভাবে বাংলাদেশে কর্মরত কূটনীতিক ও তাদের পরিবারের বুস্টার ডোজ টিকা কার্যক্রম চালু করতে পেরে। ইতিমধ্যে দেশে আমরা সাড়ে সাত কোটি মানুষকে টিকা দিয়েছি। প্রথম দিকে টিকা পেতে বাংলাদেশের অসুবিধা হলে অনেক দেশই এগিয়ে এসে টিকা দান করে। এখন আমি বলতে পারি আমাদের হাতে সাড়ে তিন কোটি টিকা রয়েছে বা পেতে যাচ্ছি। দেশের সকলকেই টিকা আওতায় আনা হবে।’
 
তিনি বলেন, ‘কোভিড-১৯ মোকাবিলায় আমরা সর্বাত্মক চেষ্টা করছি। তবে ওমিক্রন এসে গেছে। আমি জানি না এটা কি! ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে কথা বলেছি তিনি আমাকে বলেছেন, একদিনেই ভারতে লাখের ওপর ওমিক্রনে আক্রান্ত হচ্ছে। অন্যদিকে যুক্তরাষ্ট্রে একদিনে ১০ লাখ লোক আক্রান্তের খবর মিডিয়া প্রচার করেছে। যা হোক আমরা ভালো আছি। আমাদের নিজেদের রক্ষা করতে হবে।’

পররাষ্ট্র-বাংলাদেশ এর আরো খবর