২০২১ সালে ৫ শতাংশ প্রবৃদ্ধি অর্জন করবে বাংলাদেশ: আইএমএফ

২০২১ সালে বাংলাদেশের অর্থনীতি ৫ শতাংশ হারে প্রবৃদ্ধি অর্জন করবে বলে জানিয়েছে আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিল (আইএমএফ)।
 
বিশ্ব অর্থনীতির গতিপ্রকৃতি অনুমান করে 'ওয়ার্ল্ড ইকোনমিক আউটলুক' শীর্ষক পূর্বাভাস সূচক প্রতিবেদন প্রকাশ করে ওয়াশিংটন ভিত্তিক দাতা গোষ্ঠীটি। এবার বিশ্বব্যাংকের সঙ্গে সংস্থাটির বসন্তকালীন বৈঠকের পূর্বে আউটলুক প্রতিবেদনটি প্রকাশিত হয়েছে। সেখানে আগামী বছর অর্থাৎ ২০২২ সালে বাংলাদেশের অর্থনীতি আরেকটু শক্তিশালী হয়ে ৭.৫ শতাংশ হারে বাড়বে বলেও জানানো হয়।
 
২০২১ সালে দক্ষিণ এশিয়ার অপর দুই বড় অর্থনীতি ভারত ও পাকিস্তান যথাক্রমে ১২.৫ ও ১.৫ শতাংশ হারে প্রবৃদ্ধি অর্জন করবে বলেও জানায় আইএমএফ।
 
বিশ্বের প্রধান অর্থনীতিগুলোর মধ্যে গেল বছর মহামারি স্বত্বেও ইতিবাচক প্রবৃদ্ধির ধারায় ছিল শুধুমাত্র চীন। এবছরে দেশটি ৮.৬ শতাংশ হারে প্রবৃদ্ধি অর্জন করবে, তবে ২০২২ সালে প্রবৃদ্ধি কমে দাঁড়াবে ৫.৬ শতাংশে।
 
আইএমএফ- এর প্রধান অর্থনীতিবিদ গীতা গোপীনাথ বলেন, পূর্ব প্রকাশিত আভাস সংশোধন করে আমরা ২০২১ ও ২০২২ সালে বৈশ্বিক অর্থনীতির আরও শক্তিশালী উত্তরণের অনুমান করছি। যার আওতায় ২০২১ সালে ৬ শতাংশ এবং ২০২২ সালে ৪.৪ শতাংশ হারে বিশ্ব অর্থনীতি বাড়বে বলে আভাস দেওয়া হয়েছে।
 
বিশ্বের এক নম্বর অর্থনীতি যুক্তরাষ্ট্র চলতি বছর ৭.১ শতাংশ প্রবৃদ্ধি অর্জন করবে বলে আইএমএফ জানিয়েছে। এছাড়া, ইউরো জোনে ৩.৩ এবং যুক্তরাজ্যে ৫.৯ শতাংশ প্রবৃদ্ধির আভাস দিয়েছে সংস্থাটি।

অর্থ ও বাণিজ্য এর আরো খবর