অসম বিশ্বে মানসিক স্বাস্থ্য

বিশ্ব মানসিক স্বাস্থ্য দিবস ১০ অক্টোবর। সারাবিশ্বে মানসিক স্বাস্থ্য বিষয়ে সচেতনতা বৃদ্ধির উদ্দেশে এই তারিখে নানা আয়োজনের মধ্য দিয়ে এই দিবসটি পালন করা হয়। বিশ্বের অন্যান্য দেশের মতো বাংলাদেশেও পালিত হচ্ছে দিবসটি। এ বছর দিবসটির প্রতিপাদ্য ‘অসম বিশ্বে মানসিক স্বাস্থ্য’। মানসিক স্বাস্থ্য ঠিক থাকলে কর্মদক্ষতা বৃদ্ধি পাবে এবং সামগ্রিক উৎপাদনশীলতা বাড়বে, এই সচেতনতা বৃদ্ধি করাই দিবসটির মূল উদ্দেশ্য। দিবসটি উপলক্ষে সরকারি ও বেসরকারি উদ্যোগে বিভিন্ন কর্মসূচি নেওয়া হয়েছে। পৃথক বাণী দিয়েছেন রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। বিশ্ব মানসিক স্বাস্থ্য দিবস হলো পৃথিবীর সকলের মানসিক স্বাস্থ্যশিক্ষা, সচেতনতার দিন। এটি ১৯৯২ সালে প্রথম পালন করা হয়। কিছু দেশে একে মানসিক রোগ সচেতনতা সপ্তাহের অংশ হিসেবে পালন করা হয়। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার তথ্যমতে, প্রতি ৪০ সেকেন্ডের মধ্যে কেউ না কেউ আত্মহত্যার মাধ্যমে প্রাণ হারান। আত্মহত্যাজনিত মৃত্যুর অধিকাংশই প্রতিরোধযোগ্য। অধিকাংশ ব্যক্তিই আত্মহত্যার সময় কোনো না কোনো মানসিক রোগে আক্রান্ত থাকেন। সাধারণত সেটা গুরুত্ব দেওয়া হয় না বা মানসিক রোগ নিশ্চিত হলেও যথাযথ চিকিৎসা করা হয় না বলেই আত্মহত্যা বেড়ে যাচ্ছে। মানসিক স্বাস্থ্যের উন্নয়নের মাধ্যমে আত্মহত্যার এ হার কমিয়ে আনা সম্ভব। দিবসটি উপলক্ষে একটি ফেসবুক লাইভ সেশনের আয়োজন করেছে আইএসডি। সেশনে থাকবেন আইএসডির সেকেন্ডারি সোশ্যাল-ইমোশনাল কাউন্সিলর সেকাই চিটাউকিরে, প্রাইমারি কাউন্সিলর ভিভিয়ান হুইজেঙ্গা এবং শিক্ষা প্রতিষ্ঠানটির অ্যাডভান্সমেন্ট সেন্টার লিডার মিরা ভ্যান ডার উইলেন। ৭টা থেকে ৭:৪৫ পর্যন্ত আইএসডির ফেসবুক পেজ (@InternationalSchoolDhaka) থেকে সরাসরি সম্প্রচারিত হবে সেশনটি।