সিএনজি স্টেশন বন্ধের সিদ্ধান্ত জানা যাবে আজ

বিদ্যুৎ উৎপাদনে গ্যাসের সরবরাহ বাড়াতে সিএনজি ফিলিং স্টেশনগুলো প্রতিদিন বিকাল ৫টা থেকে ছয় ঘণ্টা বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। তবে এ সিদ্ধান্ত কবে থেকে কার্যকর হবে তা জানা যাবে আজ মঙ্গলবার। মন্ত্রণালয়ের সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, সিএনজি স্টেশন বন্ধের বিষয়টি নিয়ে মঙ্গলবার পেট্রোবাংলার কার্যালয়ে অংশীজনদের নিয়ে বৈঠক হবে। সেখানেই ঠিক হবে কবে থেকে সিএনজি স্টেশন বন্ধ রাখা হবে।
 
এর আগে গতকার সোমবার বিকেলে মন্ত্রণালয়ের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছিল, নিরবচ্ছিন্ন বিদ্যুৎ সরবরাহ নিশ্চিত করতে বুধবার থেকে প্রতিদিন বিকেল ৫টা-রাত ১১টা পর্যন্ত সিএনজি স্টেশন বন্ধ থাকবে।
 
বিদ্যুৎ জ¦ালানি ও খনিজসম্পদ মন্ত্রণালয়ের উপপ্রধান তথ্য অফিসার মীর মোহাম্মদ আসলামউদ্দিন মন্ত্রণালয়ের এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, ‘বিদ্যুতের সর্বোচ্চ চাহিদার সময়ে (পিক আওয়ার) গ্যাসের চাহিদাও বেড়ে যায়। মূলত এই কারণে ওই সময় সিএনজি স্টেশনগুলো বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।
 
গতকাল জ¦ালানি বিভাগের এক চিঠিতে বলা হয়, গ্যাসভিত্তিক বিদ্যুৎকেন্দ্রগুলোর গ্যাসের চাহিদা ও সরবরাহের স্বল্প, মধ্যম ও দীর্ঘমেয়াদি পরিকল্পনা প্রণয়নের বিষয়ে গত ১৯ জুলাই প্রধানমন্ত্রীর বিদ্যুৎ জ্বালানি ও খনিজ সম্পদবিষয়ক উপদেষ্টা ড. তৌফিক-ই-ইলাহী চৌধুরী এবং বিদ্যুৎ জ্বালানি ও খনিজসম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদের উপস্থিতে একটি সভা অনুষ্ঠিত হয়। সেই সভায় এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।
 
এদিকে সিএনজি স্টেশন বন্ধ রাখার বিষয়ে সিএনজি ওনার্স অ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক ফারহান নূর বলেন, এ বিষয়ে মন্ত্রণালয় থেকে আমাদের কিছুই জানানো হয়নি। সিএনজি স্টেশনগুলো সবচেয়ে বেশি গ্যাসের মূল্য পরিশোধ করছে। কিন্তু যখন-তখন সিএনজি স্টেশনগুলো বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত দেওয়া হচ্ছে।

সর্বশেষ সংবাদ

আইন আদালত এর আরো খবর