১৬ হাসপাতালে বাক্সবন্দি যন্ত্রপাতি, তদন্তের নির্দেশ

সারাদেশের ১৬টি সরকারি হাসপাতালে এক্স-রে, আলট্রাসনোগ্রাম, ইসিজি, ভেন্টিলেটরসহ ২৮ ধরনের রোগনির্ণয় যন্ত্রপাতি বাক্সবন্দি পড়ে থাকার কারণ খুঁজে বের করতে নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট।
 
রবিবার এ সংক্রান্ত এক রিটের শুনানি করে বিচারপতি এম. ইনায়েতুর রহিম ও বিচারপতি মো. মোস্তাফিজুর রহমানের সমন্বয়ে গঠিত ভার্চুয়াল বেঞ্চ এ আদেশ দেন।
 
আদালতে রিটের পক্ষে শুনানি করেন ব্যারিস্টার মনোজ কুমার ভৌমিক।
 
পরে আদালত থেকে বেরিয়ে আদেশের বিষয়টি সাংবাদিকদের নিশ্চিত করেন এই আইনজীবী।
 
রুলে দীর্ঘ দিন ধরে এসব যন্ত্রপাতি এভাবে পড়ে থাকায় বিবাদীদের নিষ্ক্রিয়তাকে কেন বেআইনি ঘোষণা করা হবে না, তা জানতে চেয়েছেন হাইকোর্ট। স্বাস্থ্য সচিব, স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক, ১৬ হাসপাতাল পরিচালকসহ ২১ জনকে রুলের জবাব দিতে বলা হয়েছে।
 
এর আগে একটি জাতীয় দৈনিকে প্রকাশিত প্রতিবেদন যুক্ত করে হাইকোর্টে রিট আবেদন করা হয়। ওই রিটের শুনানি নিয়ে এই আদেশ দেন হাইকোর্ট।
 
প্রতিবেদন অনুযায়ী, দেশের ১৬টি সরকারি হাসপাতালে ২৮টি রোগনির্ণয় যন্ত্র বাক্সবন্দি অবস্থায় পড়ে আছে। এগুলোর মধ্যে রয়েছে এক্স-রে, আলট্রাসনোগ্রাম, ইসিজি ও ভেন্টিলেটর যন্ত্র। পড়ে থেকে অনেক যন্ত্র নষ্টও হয়ে গেছে। কোনোটি নষ্ট হওয়ার উপক্রম। বেশিরভাগ হাসপাতাল কর্তৃপক্ষই জানিয়েছে, যন্ত্র অব্যবহৃত থাকার প্রধান কারণ সংশ্লিষ্ট লোকবলের অভাব। আবার কোথাও কারিগরি সহায়তার অভাবে যন্ত্র বসানো যায়নি।

আইন আদালত এর আরো খবর