কৃত্রিম মাটি ‘পলিমার ক্লে’ দিয়ে তৈরি দৈত্য

একচোখা দৈত্য সাইক্লোপসের নাম অনেকেই শুনেছেন। গ্রিক পৌরাণিক গল্পের যোদ্ধা ইউলিসিস এক নির্জন দ্বীপে দেখা পেয়েছিলেন এই নরখাদক দৈত্যের। কপালের ঠিক মাঝখানে তার একটিমাত্র চোখ; গোল লাল জ্বলজ্বলে। মানুষ পেলে টপাটপ গিলে ফেলত সাইক্লোপস। সেই ভয়ঙ্কর দৈত্য সাইক্লোপসকে এবার পেতে পারেন আপনার বসার ঘরে, শোকেসে। সে আর মানুষখেকো বিশালকায় নেই, হয়ে গেছে বামন সাইক্লোপস। কৃত্রিম মাটি 'পলিমার ক্লে' দিয়ে বানিয়ে নিতে পারেন এমন খেলনা দৈত্য।

শুধু দৈত্যই নয়, এ কৃত্রিম মাটিতে বানানো 

যেতে পারে অক্টোপাস থেকে ডাইনোসর, প্রজাপতি থেকে অজগর কিংবা ইচ্ছে মতো যে কোনো জীবজন্তু। প্রকৃতির যে কোনো কিছুর আদলে বানানো যেতে পারে মজার সব খেলনা, কিংবা হাল আমলের কোনো কার্টুন চরিত্র বানিয়েও তুলে দিতে পারেন শিশুর হাতে। আপনিই বা বাদ যাবেন কেন, নিজের জন্যও বানিয়ে নিতে পারেন যে কোনো আদলের গহনা। তাতে থাকবে পছন্দের রঙ। 

যুক্তরাষ্ট্রের উত্তর ক্যারোলাইনার বাসিন্দা মিশেল প্যাটারসন পলিমার ক্লে দিয়ে তৈরি করে ফেলেছেন একটি ভিন্ন জগৎ। কৃত্রিম মাটি দিয়ে তিনি বানিয়েছেন গহনা, খেলনাসহ নানা জিনিস। তিনি বিষয়টিকে কাজে লাগিয়েছেন বাণিজ্যিক উদ্দেশ্যে। মিশেল বলেন, পলিমার ক্লের সঙ্গে নানা ধরনের কাঠ, পাথর, কাচের টুকরো ব্যবহার করে তিনি এসব বানিয়েছেন। এসব জিনিস বানানোর ক্ষেত্রে মাথায় রেখেছেন প্রকৃতিকে। ফ্যান্টাসি জগতের এসব কিছুই নিজের আনন্দের জন্য কিংবা বন্ধু-স্বজন কাউকে উপহারও দেওয়া যেতে পারে।