আফগানিস্তানের বিপক্ষে বাংলাদেশের সম্ভাব্য একাদশ

এশিয়া কাপের উদ্বোধনী ম্যাচে শ্রীলংকাকে হারিয়ে ফুরফুরে মেজাজে রয়েছে টাইগাররা। আজ আবার আফগানিস্তানের বিপক্ষে গর্জন দেওয়ার পালা। এই ম্যাচটা হতে পারত বাঁচা মরার লড়াই। সেটাই এখন নিয়মরক্ষার।

আফগানিস্তানকে হারালেও বাংলাদেশ গ্রুপ ‘বি’র ২ নম্বর দল হয়ে সুপার ফোরে, জিতলেও তাই। তবে সব ভুলে আজ আফগানিস্তানের বিপক্ষে জয়ের প্রত্যয় নিয়েই নামবে বাংলাদেশ।

কালই আবার ভারতের বিপক্ষে দুবাইয়ে সুপার ফোরের প্রথম ম্যাচ। প্রচন্ড গরমে খেলার পর ১৪০ কিলোমিটার ভ্রমণ করে দুবাই আসতে হবে পুরো দলকে। তাই আজ কয়েকজনকে বিশ্রাম দেওয়ার সিদ্ধান্ত টিম ম্যানেজমেন্টের।

আজকের ম্যাচে পুরো শক্তি নিয়ে যে বাংলাদেশ নামছে না, সেটি মোটামুটি নিশ্চিত। শুধু আজকের ম্যাচ কেন পুরো সিরিজেই বাংলাদেশ দলকে খেলতে হবে খর্বশক্তি নিয়ে।

এর কারণ ইনজুরি নিয়ে দেশে ফিরতে হয়েছে ড্যাশিং ওপেনার তামিম ইকবালকে। মিস্টার ডিপেন্ডেবল মুশফিকুর রহীমের পাজরেও চোট রয়েছে। গত কয়েক দিনে তাঁকে প্রায় অর্ধশতক ব্যথানাশক খেতে হয়েছে। তাই পুরো সিরিজে ফিট মুশফিককে পাওয়া নিয়ে শঙ্কা থেকেই যাচ্ছে।

ছয় মাস নিষেধাজ্ঞা থাকায় দলে নেই নির্ভরযোগ্য ব্যাটসম্যান সাব্বির রহমান। নিয়মিত ওপেনার ইমরুল কায়েস ও সৌম্য সরকারও ফর্মে না থাকায় এশিয়া কাপে নেই। তাই ব্যাটিং লাইন আপটা অনেকটা নড়বেড়ই বলতে হবে।

তবুও প্রথম ম্যাচে দূর্দান্ত খেলে শ্রীলংকার বিপক্ষে রবিবাসরীয় জয় পেয়েছে মাশরাফিরা। আজও আফগানিস্তানকে হারাতে তেতে আছে তাঁরা।

আজকের ম্যাচে প্রথম ম্যাচে জয়ের নায়ক মুশফিক খেলছেন না। তাকে বিশ্রামে পাঠানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে টিম ম্যানেজমেন্ট। তাঁর জায়গায় খেলবেন টেস্ট খেলোয়ার তকমাধারী মমিনুল হক।

উদ্বোধনী কে খেলবে এটি নিয়েও দ্বিধায় টিম ম্যানেজমেন্ট। লিটন দাস ম্যাচ ওপেন করলে তার সঙ্গী হিসেবে দু’জনকে ভাবা হচ্ছে। তারা হলেন-নাজমুল হোসেন শান্ত ও মোহাম্মদ মিঠুন। মিঠুন উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান হিসেবে মাঠে নামার আগ্রহ দেখিয়েছেন। তবে নির্বাচকরা চাইছে গত ম্যাচে মিডলঅর্ডারে খেলে সফল হওয়া মিঠুনকে একই পজিশনে খেলাতে।  আর সেটা হলে ওয়ানডে অভিষেক হয়ে যাবে তরুণ এই ক্রিকেটারের।

আজকের ম্যাচটা অনেকটা গুরুত্বহীন হওয়ায় এবং কালকে আরেকটি ম্যাচ থাকায় সাকিব আল হাসানকেও বিশ্রাম দেওয়ার কথা শোনা যাচ্ছে। আর সেটা হলে সাকিবের জায়গায় আসতে পারেন তরুণ আরিফুল হক।

এদিকে বেঞ্চের বোলিং শক্তি ঝালিয়ে নিতে বোলিংয়েও পরিবর্তন আসতে পারে। কাটার মাস্টার মুস্তাফিজুর রহমানের জায়গা এই ম্যাচে দলে সুযোগ পেতে পারেন আবু হায়দার রনি।

গত ম্যাচে ফ্লপ অলরাউন্ডার মোসাদ্দেকের জায়গায় খেলানো হতে পারে নাজমুল ইসলাম অপুকে।

বাংলাদেশের সম্ভাব্য একাদশ

১. নাজমুল হোসেন শান্ত

২. লিটন কুমার দাস

৩. সাকিব আল হাসান/ আরিফুল হক

৪. মোহাম্মদ মিঠুন

৫. মুমিনুল হক

৬. মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ

৭. মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত/ নাজমুল ইসলাম অপু

৮. মেহেদি হাসান মিরাজ

৯. মাশরাফি বিন মর্তুজা

১০. রুবেল হোসেন

১১. মোস্তাফিজ/ আবু হায়দার রনি

সর্বশেষ সংবাদ