র‌্যাঙ্কিংয়ে অস্ট্রেলিয়ার আরও পতন

দক্ষিণ আফ্রিকায় সিরিজ হারের পর টেস্ট র‌্যাঙ্কিংয়েও পতন ঘটল অস্ট্রেলিয়ার। অথচ জানুয়ারিতে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে অ্যাশেজ সিরিজ জিতে টেস্ট র‌্যাঙ্কিংয়ে শীর্ষে ওঠার আশা জোড়ালো করে অজিরা। কিন্তু দক্ষিণ আফ্রিকার কাছে ৩-১ ব্যবধানে সিরিজ হেরে র‌্যাঙ্কিংয়ে তিন থেকে চারে নম্বরে নেমে গেছে তারা। অন্যদিকে ঘরের মাঠে দুই টেস্টের সিরিজে ইংল্যান্ডকে ১-০ ব্যবধানে হারিয়ে র‌্যাঙ্কিংয়ে উন্নতি করেছে নিউজিল্যান্ড। তারা উঠে এসেছে ৩ নম্বরে। আর দেশের বাইরে টানা ১৭ টেস্টে জয়ের মুখ না দেখা ইংল্যান্ড রয়েছে ৫ নম্বরে। র‌্যাঙ্কিয়ের শীর্ষ স্থানে যথারীতি ভারত ও তারপরই দক্ষিণ আফ্রিকা। বাংলাদেশর অবস্থান ৯ নম্বরে। ৬ নম্বরে রয়েছে শ্রীলঙ্কা, ৭ নম্বরে পাকিস্তান, ৮-এ ওয়েস্ট ইন্ডিজ এবং ১০ নম্বরে জিম্বাবুয়ে। যদিও বছরের শুরুটা স্বপ্নের মতো ছিল অস্ট্রেলিয়ার। ঘরের মাঠে ইংলিশদের বিধ্বস্ত করে অ্যাশেজ ৪-০তে জেতে তারা। এরপর দক্ষিণ আফিকা সফরে এসে প্রথম টেস্ট জয়ের পরই পাল্টে গেলো সব কিছু। কেপটাউনে দ্বিতীয় টেস্টে বল টেম্পারিং কান্ডে অভিযুক্ত হন অজি অধিনায়ক স্টিভেন স্মিথ, সহ-অধিনায়ক ডেভিড ওয়ার্নার ও ক্যামেরুন ব্যানক্রফট। পরে স্মিথ ও ওয়ার্নারকে আন্তর্জাতিক ও ঘরোয়া ক্রিকেটে এক বছরের জন্য নিষিদ্ধ করে ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া (সিএ)। আর ক্যামেরুন ব্যানক্রফটকে ৯ মাসের জন্য নিষিদ্ধ করা হয়। জোহানেসবার্গে নতুন অধিনায়ত্ব পাওয়া টিম পাইনের অধীনে নিজেদের টেস্ট ইতিহাসে দ্বিতীয় বাজে রানে হারের লজ্জা পায় অস্ট্রেলিয়া। সেই সঙ্গে দক্ষিণ আফ্রিকার মাটিতে ১৯৭০’র পর প্রথম সিরিজ হারে তারা।

সর্বশেষ সংবাদ