অলিম্পিক ২০৩২ আসরের স্বাগতিক হতে চায় ভারত

আন্তর্জাতিক অলিম্পিক ২০৩০ আসরের স্বাগতিক হতে চায় ভারত। করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাব পরিস্থিতি কমে আসার পর এ ব্যাপারে তৎপরতা বাড়ানো হবে বলে বার্তা সংস্থা এএফপিকে জানিয়েছেন ভারতীয় অলিম্পিক অ্যাসোসিয়েশন- আইওএ’র প্রধান নারিন্দ্র বাত্রা।
 
তার দাবি, ভারত দশ বছর আগে কমনওয়েলথ গেমস আয়োজন করে অনেক কিছুই শিখতে পেরেছে আইওএ। সেখান থেকে শিক্ষা নিয়ে সামনে যুব অলিম্পিক ও মূল অলিম্পিকও আয়োজন করতে চায় তারা।
 
“এ ব্যাপারে আমরা খুবই সিরিয়াস। নিশ্চিতভাবে ২০২৬ ইয়ুথ অলিম্পিক গেমস ও ২০৩২ সালের অলিম্পিকের জন্য লড়ব আমরা।”
 
নারিন্দ্র বাত্রা জানিয়েছেন, এরই মধ্যে এ ব্যাপারে অলিম্পিক কমিটির কাছে লিখিত আবেদন পাঠিয়েছে ভারত। এর মধ্যে ২০২৬ সালের যুব অলিম্পিক আয়োজনের জন্য থাইল্যান্ড, রাশিয়া ও কম্বোডিয়াও আবেদন জানিয়েছে বলে জানা গেছে।
 
সংবাদমাধ্যমে খবর, ২০৩২ অলিম্পিক আয়োজনের জন্য লড়তে পারে অস্ট্রেলিয়ার কুইন্সল্যান্ড, সম্মিলিতভাবে লড়তে পারে চীনের সাংহাই, দক্ষিণ কোরিয়ার সিউল ও পিয়ংইয়ং।
 
করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের কারণে এ ব্যাপারে সকল আলোচনা এখন থমকে আছে। এ নিয়ে ২০২৫ সালের দিকে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত হবে বলে জানিয়েছেন বাত্রা।
 
ভারতের প্রভাবশালী ক্রীড়া নেতৃত্ব বাত্রা বলেন, “এখন এ সংক্রান্ত একটি দল বিভিন্ন ভেন্যুগুলো পরিদর্শন করবেন। আপনাকে তাদের সঙ্গে আলোচনা অব্যাহত রাখতে রাখতে হবে। এরপর তারা প্রতিবেদন জমা দেবে। এটা একটি চলমান প্রক্রিয়া। এখনই এ ব্যাপারে সরকার ও অন্যান্যদের সঙ্গে আলোচনার সময় আসেনি।”
 
এর আগে ২০১০ সালে কমনওয়েলথ গেমস আয়োজন করেছিল দিল্লি। কিন্তু সে সময় নির্ধারিত সময়ে অবকাঠামো নির্মাণ করতে ব্যর্থ হয় দেশটি। আয়োজকদের বিরুদ্ধে অর্থ ছয় নয়ের অভিযোগও ওঠে।

খেলা এর আরো খবর