নববর্ষের অনুষ্ঠান বাতিল

আসন্ন বাংলা নববর্ষের অনুষ্ঠান বন্ধ রাখার জন্য আহ্বান জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।
 
মঙ্গলবার সকালে জেলা প্রশাসকদের সাথে এক ভিডিও কনফারেন্স আলোচনার শুরুতে তিনি এ আহ্বান জানান।
 
করোনা ভাইরাসের সম্ভাব্য সংক্রমণ মোকাবেলা দেশে চলমান সরকারি ছুটি আরো বাড়ানো হতে পারে বলে ইঙ্গিত দেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।
 
তিনি বলেন, নববর্ষের অনুষ্ঠান আমি মনে করি ডিজিটাল পদ্ধতিতে আপনারা করতে পারি। বিশাল জনসমাগম করে এই অনুষ্ঠান সারা বাংলাদেশে সম্পূর্ণ বন্ধ রাখতে হবে। এটা আমার বিশেষ অনুরোধ।
 
শেখ হাসিনা বলেন, নববর্ষের অনুষ্ঠান বন্ধ রাখতে বলার বিষয়টি তার জন্য কষ্টের বিষয়।
 
প্রধানমন্ত্রী বলেন, কষ্ট বেশি লাগছে আমার। এটা ঠিক যে নববর্ষের অনুষ্ঠান আমরাই শুরু করেছিলাম অনেক বাধা-বিঘ্ন অতিক্রম করে। কিন্তু আজকে সেটাও আমাকে বন্ধ রাখতে হচ্ছে এই কারণে যে মানুষের কল্যাণের দিকে তাকিয়েই কিন্তু এটা আমরা বন্ধ রাখছি।
 
‘কাজেই নববর্ষের অনুষ্ঠান আপনারা করবেন না। এটা আপনারা বন্ধ রাখবেন’।
 
তিনি বলেন, কেউ যদি মনে করে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হবার লক্ষণ দেখা দিয়েছে তাহলে সাথে সাথে পরীক্ষার ব্যবস্থা করবেন।
 
কেউ করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হলে সেটি গোপন না করার আহবান জানান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।
 
‘লুকাতে যেয়ে নিজের সর্বনাশ করবেন না। পরিবারের সর্বনাশ করবেন না।’
 
এছাড়া কাউকে খাদ্য সাহায্য দিতে গিয়ে জনসমাগম না করার আহ্বান জানান শেখ হাসিনা।
 
তিনি দাবি করেন, করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকানোর জন্য সরকার যথেষ্ট পদক্ষেপ নিয়েছে এবং পরিস্থিতি এখনো পর্যন্ত নিয়ন্ত্রণে রাখতে সক্ষম হয়েছে বাংলাদেশ।

বিশেষ প্রতিবেদন এর আরো খবর