সোমবার ক্লাসে ফিরছেন ড. জাফর ইকবাল

জঙ্গি হামলার পর একটু সুস্থ হয়ে প্রথমেই নিজের ক্যাম্পাসে ছুটে এসেছিলেন ড. মুহম্মদ জাফর ইকবাল। যে মুক্তমঞ্চে হামলার শিকার হয়েছিলেন, সেখানে দাঁড়িয়েই প্রিয় শিক্ষার্থীদের আশ্বস্ত করেছিলেন। এরপর আবার ফিরে গিয়েছিলেন ঢাকায়। তবে শিক্ষার্থীদের পড়াশোনার কথা চিন্তা করে এক মাসের মধ্যেই সোমবার ক্লাসে ফিরছেন তিনি। বেলা ১১টার দিকে তার শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে (শাবি) এসে পৌঁছার কথা। রোববার বিকেলে তার ব্যক্তিগত সহকারী জয়নাল আবেদিন এ তথ্য নিশ্চিত করে বলেন, 'স্যার (ড. জাফর ইকবাল) সকালে ঢাকা থেকে রওনা হবেন। প্রায় এক মাস শিক্ষার্থীদের ক্লাস-পরীক্ষা নিতে না পারায় তিনি দ্রুততম সময়ের মধ্যে ক্লাসে ফিরছেন। বর্তমানে স্যার পুরোপুরি সুস্থ আছেন।' গত ৩ মার্চ বিশ্ববিদ্যালয়ের মুক্তমঞ্চে একটি অনুষ্ঠান চলাকালে শিক্ষাবিদ ও জনপ্রিয় লেখক ড. জাফর ইকবালকে হত্যার উদ্দেশ্যে হামলা চালায় ফয়জুর ওরফে ফয়জুল হাসান নামে জঙ্গিবাদে উদ্বুদ্ধ এক সাবেক মাদ্রাসাছাত্র। এই হামলার পরপর ড. জাফর ইকবালকে দ্রুত সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হয়। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে পরে উন্নত চিকিৎসার জন্য ওই রাতেই তাকে ঢাকার সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে (সিএমএইচ) স্থানান্তর করা হয়। গত ১৪ মার্চ সিএমএইচ থেকে ছাড়পত্র পাওয়ার পর তিনি প্রথমে বিমানে সিলেটে এসে শিক্ষার্থীদের মুখোমুখি হন। এরপর ঢাকায় ফিরে চিকিৎসকদের পরামর্শে ক'দিন বিশ্রামে ছিলেন। সোমবার শাবিতে ফিরে পুরোদমে ক্লাস শুরু করবেন তিনি। এদিকে বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে হত্যাচেষ্টার ঘটনায় অনেকে ড. জাফর ইকবালের নিরাপত্তার ব্যাপারে পুলিশের উদাসীনতার অভিযোগ করেন। যদিও ড. জাফর ইকবাল ও তার স্ত্রী ড. ইয়াসমিন হক এমন অভিযোগ উড়িয়ে দিয়েছিলেন। তবে দীর্ঘদিন ধরে প্রতিক্রিয়াশীলদের হুমকিতে থাকা এই শিক্ষাবিদের সার্বক্ষণিক নিরাপত্তা ব্যবস্থা নতুন করে ঢেলে সাজানো হচ্ছে বলে জানিয়েছেন সিলেট মহানগর পুলিশের (এসএমপি) এক কর্মকর্তা। তিনি বলেন, ড. জাফর ইকবালের নিরাপত্তা ব্যবস্থা নতুন করে সাজানো হয়েছে। তিনি সবসময় পুলিশ নিয়ে চলাফেরা করা পছন্দ করেন না। কিন্তু বর্তমান পরিস্থিতিতে তাকে বাস্তবতা মেনে নিতে হবে। জালালাবাদ থানার ওসি শফিকুল ইসলাম বলেন, তার নিরাপত্তার সার্বিক ব্যবস্থা রয়েছে।

সর্বশেষ সংবাদ

বিশেষ প্রতিবেদন এর আরো খবর