উবারে চালু হলো নিরাপত্তা ফিচার

বিশ্বের জনপ্রিয় রাইড শেয়ারিং কোম্পানি উবার বাংলাদেশে আজ থেকে চালু করেছে ‘সেফটি টুলকিট’ নামক নতুন অপশন। যার মাধ্যমে অ্যাপের একটি নির্দিষ্ট স্থানে যাত্রীরা উবারের সব সেফটি ফিচার সহজেই খুঁজে পাবেন ।
যাত্রীদের মতামতের ভিত্তিতে তৈরি করা সেফটি টুলকিট ফিচারটি চলতি বছরের মে মাসে যুক্তরাষ্ট্রে চালু করা হয়। আর তার চার মাস পরেই বাংলাদেশে চালু হলো উবারের এই ফিচারটি।
ফিচারে চালক ট্রিপ গ্রহণ করার সঙ্গে সঙ্গেই অ্যাপের হোম স্ক্রিনে ভেসে উঠবে সেফটি টুলকিট অপশনটি, যা ট্রিপ শেষ হওয়া পর্যন্ত ব্যবহার করা যাবে।
বাংলাদেশে এই ফিচারটি চালু করার প্রসঙ্গে উবারের প্রোডাক্ট ম্যানেজমেন্ট ডিরেক্টর শচীন কানসাল বলেন, উবারে যাত্রী ও চালকদের নিরাপত্তার বিষয়কে সবচেয়ে বেশি প্রাধান্য দেওয়া হয়। বাংলাদেশের হাজার হাজার যাত্রীদের জন্য ‘সেফটি টুলকিট’ চালু করা আমাদের এই প্রচেষ্টারই একটি অংশবিশেষ। আমাদের সেফটি ফিচারগুলোর বিষয়ে সবাইকে আরো সচেতন করতে এবং এগুলোর সহজ ব্যবহার নিশ্চিত করতে আমাদের প্ল্যাটফর্মটি আপডেট করেছি।
তিনি আরও বলেন, সেফটি টুলকিটের অন্যতম একটি ফিচার ‘ট্রাস্টেড কন্ট্যাক্টস’। এই ফিচারটির সাহায্যে যাত্রীরা সয়ংক্রিয়ভাবে তাদের সকল ট্রিপ অথবা বাছাইকৃত কিছু ট্রিপের সম্পর্কে তাদের পরিবারের সদস্য ও কাছের মানুষদের জানাতে পারবেন।
যা যা থাকছে নতুন ফিচারে-
সেফটি সেন্টার
১।যাত্রীরা আইন প্রয়োগকারীদের সহায়তায় তৈরি সেফটি টিপসগুলো দেখতে পারবেন এবং আমাদের ইনস্যুরেন্স সুবিধা এবং কমিউনিটি গাইডলাইনস সম্পর্কে জানতে পারবেন।
২। একটি নির্দিষ্ট স্থানে প্রধান নিরাপত্তা ফিচারসহ অন্যান্য সকল ফিচার পাওয়া যাবে, যা যাত্রীদের জন্য খুবই সহায়ক।
ট্রাস্টেড কন্ট্যাক্টস
শেয়ার ট্রিপ ফিচার যাত্রীদেরকে মানসিক চাপমুক্ত রাখবে। তবে সচেতনতার অভাবে এবং বেখায়ালী হবার কারণে এই ফিচারটি তুলনামূলক কম ব্যবহৃত হয়। নতুন ফিচারটি একজন যাত্রীকে তার ঘনিষ্ঠ পাঁচ জন ব্যক্তির সাথে নিয়মিতভাবে ট্রিপ শেয়ার করার অপশন প্রদান করবে। এখন থেকে আপনজনদের সাথে ট্রিপ শেয়ার করা আরও সহজ হবে এবং গন্তব্যে পৌঁছানো পর্যন্ত সমস্ত খবরাখবর জানবেন আপনার কাছের মানুষজন এবং এই সকল প্রক্রিয়া সম্পন্ন করার সময় গোপনীয়তা রক্ষা করা হবে।
ইমারজেন্সি বাটন
ইমারজেন্সি বাটন যাত্রীকে সরাসরি পুলিশ কন্ট্রোলরুম নম্বর ৯৯৯-এ কল করার সুযোগ প্রদান করবে। এর ফলে জরুরি সময়ে এবং অনাকাঙ্ক্ষিত প্রয়োজনে দ্রুততম সময়ে নিরাপত্তা পাওয়া সহজ হবে। নতুন ফিচারগুলি যাত্রীদের নিরাপদ রাইড প্রদান করা, জিপিএস এর মাধ্যমে ট্রিপ ট্র্যাক করা এবং স্থানীয় পুলিশের সাথে সেফটি অ্যাপের মাধ্যমে যোগাযোগ স্থাপন করার কাজ করবে।

বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি এর আরো খবর