বাঁচানো গেল না অগ্নিদগ্ধ সাংবাদিক নান্নুকে

দৈনিক যুগান্তরের অপরাধ বিভাগের প্রধান ও বাংলাদেশ ক্রাইম রিপোর্টার্স অ্যাসোসিয়েশনের (ক্র্যাব) সাবেক সাধারণ সম্পাদক মোয়াজ্জেম হোসেন নান্নু মারা গেছেন। (ইন্না লিল্লহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)।
 
আগুনে দগ্ধ হওয়ার দুই দিন পর শনিবার সকাল ৮ টা ২০ মিনিটে শেখ হাসিনা জাতীয় প্লাস্টিক এ্যান্ড বার্ন ইন্সটিটিউটে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যুবরণ করেন তিনি। 
 
শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটের সমন্বয়ক ডা. সামন্ত লাল সেন মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।
 
এর আগে গত বৃহস্পতিবার ভোরে আফতাবনগরে জহিরুল ইসলাম সিটির ৩ নম্বর রোডের পিস তাজমহল অ্যাপার্টমেন্টে নিজ বাসায় দগ্ধ হয়েছিলেন নান্নু। একই বাসায় গত ২ জানুয়ারি দগ্ধ হয়ে না ফেরার দেশে চলে যান সাংবাদিক নান্নু’র একমাত্র ছেলে স্বপ্নীল আহমেদ পিয়াস।
 
নান্নুর স্ত্রী পল্লবী গতকাল গণমাধ্যমে জানান, বৃহস্পতিবার রাতে নান্নু যুগান্তর থেকে লেট নাইট ডিউটি করে রাত দেড়টায় বাসায় ফেরেন। স্বপ্নীল মারা যাওয়ার পর তার ঘরটিতে মাঝে মাঝে আমরা দরজা খুলে দেখতাম। বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে তিনটায় নান্নু তার ছেলের কক্ষ খোলেন। দরজা খুলে বৈদ্যুতিক বাতির সুইচ চাপ দিতেই প্রচণ্ড শব্দে বিস্ফোরণ ঘটে। দগ্ধ অবস্থায় নান্নু বাথরুমে গিয়ে গোসল করেন। পরে তিনি নিজেই ঘরের আগুন নিভিয়ে ফেলেন। তাকে উদ্ধার করে শেখ হাসিনা জাতীয় প্লাস্টিক অ্যান্ড বার্ন হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানেই আইসিইউতে রেখে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছিলো। চিকিৎসকরা জানিয়েছিল, তার শরীরের ৬০ শতাংশ দগ্ধ হয়েছিল।

মিডিয়া এর আরো খবর