নখদন্তহীন ভূমিকা রাখছে ইসি : ইশরাক

নির্বাচনী প্রচারের শুরুতেই নির্বাচন কমিশনের (ইসি) ভূমিকার সমালোচনা করেছেন ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন নির্বাচনে (ডিএসসিসি) বিএনপির মেয়র প্রার্থী ইশরাক হোসেন। তিনি ইসিকে মেরুদণ্ডহীন ও নখদন্তহীন বলে মন্তব্য করেছেন।
 
শুক্রবার বেলা ১১টার দিকে রাজধানীর গোপীবাগের সাদেক হোসেন খোকা কমিউনিটি সেন্টারে নির্বাচনী প্রতীক বরাদ্দ অনুষ্ঠানে ধানের শীষ প্রতীক পাওয়ার পর সাংবাদিকদের কাছে এসব কথা বলেন ইশরাক।
 
বিএনপির এই মেয়র প্রার্থী বলেন, ‘নির্বাচন কমিশন মেরুদণ্ডহীন, নখদন্তহীন ভূমিকা রাখছে। তিন দিন আগে লিখিত অভিযোগ দিয়েছি আওয়ামী লীগ প্রার্থীর বিরুদ্ধে। তারা কোনো পদক্ষেপ নেয়নি। কালবিলম্ব করছে।’
 
নির্বাচন কমিশনের প্রতি ইঙ্গিত করে তিনি বলেন, ‘তাদের অবস্থা আমরা বুঝি। তাদের সেই ক্ষমতা নেই। এ নিয়ে আমরা বিচলিত নই, পরোয়া করি না। আমরা আচরণবিধি মেনে চলছি।’
 
ঢাকার প্রয়াত মেয়র সাদেক হোসেন খোকার ছেলে ইশরাক হোসেন বাবার স্মৃতি রোমন্থন করে বলেন, ‘বাবা বেঁচে থাকলে নিশ্চয়ই আমার জন্য গর্ববোধ করতেন। ৩৫ বছর বিএনপির রাজনীতি করেছেন তিনি। ১৯৯১ সালে তিনি প্রথম ধানের শীষ প্রতীকে নির্বাচন করেছেন। সেই প্রতীক নিয়ে আমি মেয়র পদে নির্বাচন করছি। আমি দলের প্রত্যাশা পূরণ করব।’
 
আওয়ামী লীগের মন্ত্রী-এমপিদের নির্বাচনী প্রচারণায় অংশ নেওয়ার অনুমতির জন্য ইসিতে আবেদন প্রসঙ্গে বিএনপির মেয়র প্রার্থী বলেন, ‘এসব মিডিয়ায় কথা বলার অজুহাত। তারা প্রচার করছেন, ঘরোয়া বৈঠকেও অংশ নিচ্ছেন। আমাদের কাছে সব তথ্য আছে। আমরা তো এক শহরে বাস করি, ভিনগ্রহে বাস করি না।’
 
শুক্রবার সকালে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন (ডিএসসিসি) নির্বাচনে মেয়র প্রার্থীদের প্রতীক বরাদ্দ দিয়েছে নির্বাচন কমিশন। দক্ষিণের মেয়র পদে আওয়ামী লীগের ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নূর তাপস ‘নৌকা’ ও বিএনপির ইশরাক হোসেন পেয়েছেন ‘ধানের শীষ’ প্রতীক।
 
প্রসঙ্গত, ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের নির্বাচন ৩০ জানুয়ারি অনুষ্ঠিত হবে। এদিন সকাল ৮টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত এই দুই সিটিতে ভোটগ্রহণ চলবে। পুরো ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিন (ইভিএম) পদ্ধতিতে।

রাজনীতি এর আরো খবর