ফখরুলকে ‘তওবা’ করতে বললেন শামীম ওসমান

‘খালেদা জিয়া পারে সবাইকে রক্ষা করতে’ বিএনপি মহাসচিবের এমন বক্তব্যের কড়া সমালোচনা করেছেন নারায়ণগঞ্জ আওয়ামী লীগের প্রভাবশালী নেতা শামীম ওসমান এমপি। তিনি ‘খোদা বিরোধী’ কথা বলায় মির্জা  ফখরুল ইসলাম আলমগীরকে তওবা করে স্রষ্টার কাছে ক্ষমতা চাওয়ার আহবান জানিয়েছেন। সেই সঙ্গে ফখরুলকে মোনাফেক আখ্যা দেন তিনি। সোহরাওয়ার্দী ময়দানে বিএনপির সমাবেশে চেয়ার ফাঁকা রাখার সমালোচনাও করেছেন আলোচিত এই নেতা।

গতকাল মঙ্গলবার বিকালে নারায়ণগঞ্জের সিদ্ধিরগঞ্জের ৩নং ওয়ার্ডের নয়াআটি মুক্তিনগর বটতলায় আওয়ামী লীগ আয়োজিত এক কর্মীসভায় শামীম ওসমান এসব কথা বলেন।

বিএনপি মহাসচিবের উদ্দেশে তিনি বলেছেন, ‘ফখরুল সাহেব তার নেত্রী খালেদা জিয়াকে মুক্তি দাবি করে বলেছেন খালেদাই নাকি সবাইকে রক্ষা করার মালিক’। যারা দিনের বেলায় বিপ্লবী হোন আর রাতের বেলায় আপোষকারী হয়ে যান তাদের মত মানুষের মুখেই এমন খোদা বিরোধী কথা সাজে।

মুসলমানদের পবিত্র ধর্মগ্রন্থ আল কোরআনের একটি সূরার আয়াতকে উদ্ধৃত করে শামীম ওসমান বলেন, পবিত্র আল কোরআনের সূরা তাওবা’র ১২৯নম্বর আয়াতে স্পষ্ট বলা হয়েছে ‘আল্লাহই আমার জন্য যথেষ্ট, তিনি ছাড়া আর কোনো মা’বুদ নেই, আমি তাঁর উপরই ভরসা করি।’

অথচ মির্জা ফখরুল বলছেন- খালেদাই সবাইকে রক্ষা করার মালিক। এই বক্তব্য মোনফেকির সামিল এবং জাহান্নামের সবচেয়ে নিচের স্তুরে হবে মোনাফেকের অবস্থান। তাই মির্জা ফখরুল ইসলামকে বলবো আপনি আল্লাহর কাছে তওবা করে মাফ চান।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা খোদাভীরু উল্লেখ শামীম ওসমান বলেন, জননেত্রীকে ভয় দেখিয়ে লাভ নেই। কারণ, তিনি আল্লাহ ভীরু মানুষ। শেখ হাসিনা এক আল্লাহর উপর ভরসা করেই চলেন। তিনি এবং বাংলাদেশের মানুষকে রক্ষা করার মালিক একমাত্র আল্লাহ, আগুন নেত্রী খালেদা জিয়া না। যারা অবশ্য মঞ্চে গায়েবী চেয়ার রাখে (চেয়ার ফাঁকা রেখে সোহরাওয়ার্দীতে বিএনপির সমাবেশ)তারা এমন মোনফেকি কথাবর্তা বলতেই পারে। 

শামীম ওসমান বলেন, বিএনপি-জামায়াত হত্যার রাজনীতি করে। তারা ক্ষমতায় যাওয়ার লোভে আগুনে পুড়িয়ে ৯৪ জন নিরিহ মানুষকে হত্যা করেছে। তারা বোবা প্রাণী গরু পুড়িয়ে মেরেছে।

রাজনীতি এর আরো খবর