প্রধানমন্ত্রী থাকা অবস্থায় ভোট চাওয়া বেআইনি
খবরের অন্তরালে প্রতিবেদক :

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী থাকা অবস্থায় নির্বাচনে ভোট চাওয়াটা বেআইনি। তিনি সরকারি সুবিধা নিয়ে নির্বাচনের জন্য ভোট চাইতে পারেন না। আজ শুক্রবার দুপুরে জাতীয় প্রেস ক্লাবে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে এক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে তিনি একথা বলেন। মওদুদ বলেন, খালেদা জিয়ার নেতৃত্বে ২০ দলীয় জোটসহ সমস্ত গণতান্ত্রিক শক্তিসমূহকে ঐক্যবদ্ধ করে বাংলাদেশে গণতন্ত্র ফিরিয়ে আনা হবে। মানুষের ভোটাধিকার ফিরিয়ে আনা হবে। জনগণের নিরাপত্তা, মানুষ যাতে সুখে শান্তিতে বসবাস করতে পারে তার ব্যবস্থা করা হবে। তিনি বলেন, আওয়ামী লীগ জানে যে তারা নিরপেক্ষ নির্বাচন দিতে পারবে না। কারণ, তারা জানেন বিপুল ভোটে পরাজিত হবে। এটা সত্য, জনগণের সামনে যেতে তারা ভয় পায়। তিনি আরো বলেন, খালেদা জিয়া আগামী সপ্তাহের মধ্যেই মুক্তি পাবে বলে আমরা আশা করছি। জজকোর্ট থেকে হাইকোর্টের দূরত্ব কম তবুও কাগজপত্র পাঠাতে কালক্ষেপণ করছে। আওয়ামী লীগ ভাবছে এভাবে তারা বিএনপিকে নির্বাচন থেকে দূরে রাখতে পারবে। কিন্তু বিএনপি নির্বাচনে অংশ নেবে এবং বিপুল জনপ্রিয়তা নিয়ে জয়ী হবে। আসলে পতন যখন আসন্ন হয় তখন সবাই বেপরোয়া হয়। তাই আওয়ামী লীগ এখন বেপরোয়া হয়ে পড়েছে।  এতে আরো বক্তব্য দেন, বিএনপির স্বনির্ভর বিষয়ক সম্পাদক শিরিন সুলতানা, এলডিপির সিনিয়র যুগ্ম-মহাসচিব শাহাদাৎ হোসেন সেলিম প্রমুখ।

রাজনীতি এর আরো খবর