ঈদে নতুন বেতন স্কেলে বোনাস পাচ্ছেন সরকারি চাকরিজীবীরা

আসন্ন ঈদুল আজহা ১ আগস্ট অনুষ্ঠিত হলে ২০২০-২১ অর্থবছরের নতুন বেতন স্কেল অনুযায়ী বেসামরিক কর্মচারীদের জন্য অতিরিক্ত পাঁচ শতাংশ বোনাস দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। তবে, ঈদুল আজহা যদি ৩১ জুলাই অনুষ্ঠিত হয় সেক্ষেত্রে তাদের পরবর্তী মাসের বেতন থেকে অতিরিক্ত ৫ শতাংশ বোনাস কেটে নেওয়া হবে।
 
বুধবার (৮ জুলাই) অর্থবিভাগ থেকে এ সংক্রান্ত একটি চিঠি ইস্যু করা হয়েছে। উপসচিব নাসিমা আক্তার স্বাক্ষরিত চিঠিতে ৫ শতাংশ বৃদ্ধির সঙ্গে সামঞ্জস্য রেখে বেতন ও বোনাস প্রস্তুত করতে হিসাব মহানিয়ন্ত্রকের কার্যালয়ে নির্দেশনা পাঠিয়েছে।
 
এর আগে ৬ জুলাই অর্থ বিভাগের সচিবের কাছে ‘বাংলাদেশ সচিবালয় অ্যাডমিনিস্ট্রেটিভ অফিসার্স অ্যাসোসিয়েশন’ ও ‘বাংলাদেশ সচিবালয় কর্মকর্তা-কর্মচারী ঐক্য পরিষদ’ নতুন বেসিক অনুযায়ী বেতন-বোনাস-পেনশন সুবিধা চেয়ে আবেদন করেছিল।
 
সূত্র জানায়, ঈদুল আজহা ৩১ জুলাই হলে সরকারি কর্মচারীরা জুনের মূল বেতনের সমান বোনাস পাবেন। আর যদি এটি ১ আগস্টে হয়, তাহলে জুলাইয়ের মূল বেতনের ভিত্তিতে বোনাস হবে। সেক্ষেত্রে সরকারি কর্মচারীরা লাভবান হবেন। কারণ বিদ্যমান বেতন কাঠামো অনুযায়ী সরকারি কর্মচারীদের জন্য বেতন পাঁচ শতাংশ বার্ষিক বর্ধিতকরণ জুলাই থেকে কার্যকর হয়েছে।
 
২০১৫ সালের বেতন স্কেল অনুযায়ী সরকারি চাকরিজীবীদের ১ জুলাই থেকে বার্ষিক ৫ শতাংশ ইনক্রিমেন্ট কার্যকর করা হয়। ১ আগস্ট ঈদ হলে বোনাস পাওয়ার ক্ষেত্রে বেশি টাকা পাবেন তারা।
 
এ বিষয়ে হিসাব মহানিয়ন্ত্রক কার্যালয়ের ঊর্ধ্বতন একজন কর্মকর্তা বলেন, ‘এবারের কোরবানির ঈদ ১ আগস্ট হওয়া হলে কিছুটা সমস্যা হবে। কারণ ১ জুলাই থেকে সরকারি চাকরিজীবীদের বেতন-বোনাস-পেনশন নতুন বেসিক অনুযায়ী কার্যকর হবে। ঈদ কোনো কারণে একদিন আগে হলে সে সুযোগ থেকে তারা বঞ্চিত হবেন। অবশ্যই, সরকার চাইলে নতুন বেসিক অনুযায়ী দিতে পারে।’ তিনি আরও বলেন, ‘এ কারণে অর্থ বিভাগের সিদ্ধান্ত চেয়ে চিঠি দেওয়া হয়েছে।’ অর্থ বিভাগের সিদ্ধান্ত পেলে পরবর্তী পদক্ষেপ নেওয়া হবে বলেও তিনি জানান।

জাতীয় এর আরো খবর