প্রধানমন্ত্রী
পদ্মা সেতুর কাজ আমি প্রথম শুরু করেছিলাম, বিএনপি-জামায়াত বন্ধ করে দেয়

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, পদ্মা সেতুর কাজ আমি শুরু করেছিলাম, বিএনপি-জামায়াত জোট সরকার ক্ষমতায় এসে কাজ বন্ধ করে দেয়। তবে পরে ফের ক্ষমতায় এসে কাজ শুরু করা হয় । বর্তমানে পদ্মা সেতুর ৬০ ভাগ কাজ শেষ হয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। আজ রবিবার দুপুরে মুন্সীগঞ্জের মাওয়ায় পদ্মা সেতুর নির্মাণকাজ পরিদর্শনের সময় সুধী সমাবেশের ভাষণে প্রধানমন্ত্রী এ কথা বলেন। শেখ হাসিনা বলেন, প্রথমে পদ্মা সেতুর কাজ আমি শুরু করেছিলাম। কিন্তু বিএনপি-জামায়াত জোট সরকার ক্ষমতায় এসে কাজ বন্ধ করে দেয়। পরে ফের ক্ষমতায় এসে কাজ শুরু করি। তিনি বলেন, নিচে রেল ও ওপরে সেতু এমন একটি ডিজাইন তিনি অনুমোদন করেন। তখন বিশ্বব্যাংকসহ অনেকে এগিয়ে এসেছিল কাজটি করার জন্য। কিন্তু দেশের কিছু মানুষ আছে, যারা দেশের স্বার্থ দেখেন না। গ্রামীণ ব্যাংক মানুষকে ক্ষুদ্র ঋণ দিত, উচ্চাহারে সুদ নিত জানিয়ে তিনি বলেন, ১৯৮৫-৮৬ সাল থেকে ড. ইউনুসের সঙ্গে আমার পরিচয়। তখন তাকে সহায়তা করেছিলাম। তিনি বলেছিলেন, তাকে যদি একটি ফোনের অনুমোদন দেয়া হয়, তবে তার লাভ দিয়ে গ্রামীণ মানুষের উপকার করতে পারতেন। কিন্তু ওই ফোনের কোনো লভ্যাংশ গ্রামীণ ব্যাংক পায়নি। প্রধানমন্ত্রী বলেন, ইউনুসকে গ্রামীন ব্যাংকের এমডি পদে রাখতে তখনকার মার্কিন প্রেসিডেন্ট হিলারি ক্লিনটন ফোন করেছেন, ব্রিটেনের শেরি ব্লেয়ার ফোন করলেন। কিন্তু আমরা বলেছি, এটা আইনে নেই। আইনে পড়ে না। তাকে সম্মান রক্ষার প্রস্তাব দেয়া হয়েছিল, সেই সম্মান তিনি রক্ষা করেননি। তিনি বলেন, পদ্মা সেতুতে দুর্নীতি হয়েছে বলে অভিযোগ করলেও কোনো প্রমাণ দিতে পারেনি বিশ্বব্যাংক। শেখ হাসিনা বলেন, তখন আমেরিকার স্টেট ডিপার্টমেন্ট থেকে এসে হুমকি দেয়া হত, ই্উনুসকে এমডি না রাখলে পদ্মা সেতুতে হেল্প করা হবে না। পরবর্তীতে নিজস্ব অর্থায়নে পদ্মা সেতু করার সিদ্ধান্ত নেই।

জাতীয় এর আরো খবর