ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের ১০ শতাংশ লভ্যাংশ অনুমোদন
খবরের অন্তরালে প্রতিবেদক :

দেশের প্রধান শেয়ারবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জকে (ডিএসই) ৩০ জুন, ২০১৫ সমাপ্ত অর্থবছরের ঘোষিত ১০ শতাংশ লভ্যাংশের অনুমোদন দিয়েছে শেয়ারহোল্ডাররা।

বৃহস্পতিবার রাতে রাজধানীর লা ম্যারিডিয়ান হোটেলে ডিএসইর ৫৪তম বার্ষিক সাধারণ সভায় (এজিএম) শেয়ারহোল্ডারদের কাছ থেকে এ অনুমোদন নেওয়া হয়। এজিএম অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন ডিএসইর চেয়ারম্যান বিচারপতি ছিদ্দিকুর রহমান মিয়া।

রীতি অনুযায়ী কোরআন তেলাওয়াত শেষে এজিএমে ডিএসই পরিবারের প্রয়াত সদস্যদের আত্মার মাগফিরাত কামনা করে মোনাজাত করা হয়।

বার্ষিক সাধারণ সভায় স্টক এক্সচেঞ্জের শেয়ারহোল্ডারদের উপস্থিতিতে ২০১৪-১৫ অর্থবছরের পরিচালনা পর্ষদের প্রতিবেদন উপস্থাপন করা হয়।

এ সময় ৩০ জুন, ২০১৫ সালের সমাপ্ত অর্থবছরের নিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন অনুযায়ী সুপারিশকৃত ১০ শতাংশ লভ্যাংশের অনুমোদন দেন শেয়ারহোল্ডাররা। সভায় পরবর্তী অর্থবছরের নিরীক্ষক নিয়োগ ও পারিশ্রমিক নির্ধারণ হয়।

২০১৬ সালের ১৫ মার্চ অনুষ্ঠিত পরিচালনা পর্ষদ নির্বাচনের আনুষ্ঠানিক ফল ঘোষণা করা হয়। এতে এ বছরের পরিচালনা পর্ষদ থেকে অবসরপ্রাপ্ত পরিচালক শরীফ আনোয়ার হোসেনের স্থলাভিষিক্ত হন ডিএসইর সাবেক প্রেসিডেন্ট মো. রকিবুর রহমান।

সভায় ডিএসই টাওয়ার প্রজেক্টের বিভিন্ন প্রশ্নের জবাব দেন পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মোহাম্মদ মুজিবুর রহমান। অডিট এবং রিস্ক ম্যানেজমেন্ট কমিটির কার্যক্রম সম্পর্কে আলোচনা করেন পরিচালক রুহুল আমিন। ডিএসইর বার্ষিক সাধারণ সভায় শেয়ারহোরল্ডারদের বিভিন্ন প্রশ্নের জবাব দেন এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক অধ্যাপক ড. স্বপন কুমার বালা।

অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন ডিএসইর সাবেক প্রেসিডেন্ট মো. রকিবুর রহমান, কাজী ফিরোজ রশীদ, আহসানুল ইসলাম টিটু, আহমদ রশিদ লালি, এ এস শাহুদুল হক বুলবুল, মোস্তাক আহমেদ সাদেক, এম মোয়াজ্জেম হোসেন, ডা. মো. জহিরুল ইসলাম, এ জেড এম নাজিম উদ্দিন, এম রাজীব আহসান, এম. এ. মোতালিব চৌধুরী।

এ সময় বক্তারা শেয়ারবাজারের উন্নয়নে একযোগে কাজ করার আগ্রহ প্রকাশ করেন।
খবরের অন্তরালে.কম/সো/১ এপ্রিল ২০১৬
 

সর্বশেষ সংবাদ