সুস্থ থাকার পাঁচ টিপস

আপনি কি শুধু বেঁচে থাকার জন্য যা ইচ্ছে তাই খেয়ে থাকেন? নাকি সুস্থ এবং সুন্দরভাবে বেঁচে থেকে জীবনকে উপভোগ করতে চান? যদি সুস্থ ও সুন্দরভাবে বেঁচে থেকে জীবন উপভোগ করতে চান, তা হলে আপনার প্রথম করণীয় হবে, যা ইচ্ছে হয়, তা খাওয়া বন্ধ করা। তা হলে কী খাবেন, কেমন করে খাবেন? প্রতিদিন একই ধরনের খাবার কোনোভাবেই খাবেন না। প্রতিদিনের খাবার-তালিকায় বিভিন্ন রকমের ভিটামিন, মিনারেল এবং প্রোটিনযুক্ত খাবার রাখুন। খাবারের গুণগত মানটাই বড়, পরিমাণ নয়- এমন খাবার খাবেন। প্রোটিন শরীরের ওজন না বাড়িয়ে মানসম্পন্নভাবে শক্তি সরবরাহ করে, যা কোষের জন্য অত্যন্ত প্রয়োজনীয়। খবারের মধ্যে প্রতিদিন কমপক্ষে তিনটি চেরি ফল খাবেন। চেরিফল বাতব্যথা, মাথাব্যথা এবং মাইগ্রেনের ব্যথা কমাতে সাহায্য করে। শারীরিক পরিশ্রম করলে শরীরের ওজন ঠিক থাকে, উচ্চ রক্তচাপ কমে যায়। শিশু ও কিশোরদের দিনে এক ঘণ্টা এবং বয়স্ক লোকদের শারীরিকভাবে পরিশ্রম করা উচিত। সব সময় ঘাড় নিচু করে ফোন ব্যবহার করা মোটেও ঠিক নয়। আপনার ফোন সব সময় আই লেবেল বরাবর থাকতে হবে। অল্প দিনের ব্যথা (৩ মাসের কম) হলে ঠাণ্ডা সেঁক আর বেশিদিনের ব্যথা হলে গরম সেঁক দিতে হবে। ধূমপান একদম ঠিক নয়। ছাড়তে মনস্থির করুন। এ জন্য বেশি বেশি করে কলা খাবেন। কারণ কলায় রয়েছে ভিটামিন-বি৬, বি১২, পটাশিয়াম, ম্যাগনেশিয়াম, যা দেহের নিকোটিনের প্রভাব দূর করতে সাহায্য করে।