গরমে সুস্থ থাকবেন যেভাবে
খবরের অন্তরালে প্রতিবেদক :

প্রচণ্ড গরম পড়তে শুরু করেছে। দিনে দিনে আবহাওয়াটা মোড় নিচ্ছে গরম থেকে আরও গরমের দিকে। ঋতু পরিবর্তনের এই সময় একটু অসচেতন হলে কিন্তু অসুস্থ হয়ে পড়তে পারেন। তাই গরম থেকে রেহাই পেতে আর শরীরকে সুস্থ রাখতে নিতে হবে কিছু বাড়তি সতর্কতা। 
১. পানি পান করুন পর্যাপ্ত

গরমকালে ঘামের সঙ্গে শরীর থেকে পানি বেরিয়ে যায়। তাই দেহে পানির জোগান সব সময় ঠিক রাখতে হয়। পানির অভাব হলে শরীরের কোষ ও মাংসপেশিগুলো ভালোমতো কাজ করে না। তাই বেশি করে পানি পান করা প্রয়োজন। তবে কিডনি রোগীরা পানি পান করবেন চিকিৎসকের পরামর্শ মেনে।

২. রোদে বের হবেন বুঝেশুনে

গরমের সময় প্রয়োজন না হলে রোদে বের হবেন না। কড়া রোদে বের হলে শরীর বেশি ক্লান্ত হয়ে পড়বে। আর বাইরে যদি বেরোতেই হয়, ছায়ার মধ্য দিয়ে চলার চেষ্টা করুন। সঙ্গে রাখুন ছাতা। পরতে পারেন ক্যাপ। মাখতে পারেন সানস্ক্রিন। ব্যবহার করুন সানগ্লাস।

৩. খান তরল খাবার

এ সময়টায় খুব ভারী খাবার এড়িয়ে যাওয়াই ভালো। তরল খাবার বেশি করে খান। স্যুপ, ফলের রস, শসা, ডাব, তরমুজ এগুলো খান। সবজি খাবেন প্রচুর। শরীর প্রচুর ঘামলে খাবার স্যালাইন খান।

৪. সুতির পোশাক

খুব জমকালো পোশাক পরবেন না। সুতির হালকা রঙের পোশাক পরুন। হালকা রঙের পোশাক শরীরকে ঠান্ডা রাখতেও সাহায্য করবে। কীভাবে? গাঢ় রঙের পোশাক তাপ বেশি শোষণ করে। তবে হালকা রঙের পোশাক তাপ কম শোষণ করে এবং তাপ প্রতিফলিত করে। সিনথেটিক পোশাক এড়িয়ে যান। বাদ দিন কালো রঙের পোশাক।

৫. গোসল করুন বুঝেশুনে

গরমের মাঝামাঝি সময় দিনে কয়েকবার গোসল করা যায়। তবে গরমের শুরুর দিকে গোসলটা একটু বুঝেশুনে করুন। কেননা, ঠান্ডা থেকে হঠাৎ করে আবহাওয়াটা গরমের দিকে চলে যায় বলে এর সঙ্গে শরীরের সমন্বয় হতে একটু সময় লাগে। তাই হুট করে প্রথম থেকেই বেশি গোসল করা শুরু করবেন না। এতে ঠান্ডা লেগে যেতে পারে। বেশি গরম লাগলে ভেজা তোয়ালে দিয়ে গা মুছুন।

৬. খুব রোদে ব্যায়াম নয়

শরীর সুস্থ রাখতে ব্যায়াম তো করবেনই। তবে খুব গরমে বা রোদের ভেতর ব্যায়াম না করাই ভালো। খুব রোদে কোনো শারীরিক পরিশ্রমও করতে যাবেন না। এতে দেহের তাপ বাড়বে। অসুস্থ হয়ে পড়বেন। ব্যায়াম করতে চাইলে খুব ভোরে বা বিকেলে করুন।

৭. মাখবেন না কড়া পারফিউম

গরমে ঘামের দুর্গন্ধ কমাতে আমরা পারফিউম মাখি। তবে পারফিউম মাখতে হলে হালকা গন্ধের বেছে নিন। কড়া গন্ধের পারফিউম মাখলে গরম লাগার ভাব বাড়বে।

৮. ধূমপান বাদ

ধূমপান শরীরকে বেশি গরম করে তোলে। ত্বকে শুষ্কতা বাড়ায়। তাই ধূমপান নয়। এ ছাড়া চা-কফি কম খান। এড়িয়ে যান মদ্যপান। এগুলো পানিশূন্যতা বাড়িয়ে দেয়। এর বদলে খান ডাবের পানি, ফলের রস অথবা কেবল পানি।
খবরের অন্তরালে.কম/সো/১০ এপ্রিল ২০১৬