নরওয়ের মসজিদে গুলিতে একজন আহত, হামলাকারী গ্রেপ্তার

নরওয়ের রাজধানী অসলোর কাছে একটি মসজিদে বন্দুকধারীর হামলায় এক ব্যক্তি আহত হয়েছেন। গতকাল শনিবার স্থানীয় সময় বিকেলে রাজধানী থেকে ২০ কিলোমিটার দূরে বায়েরুম এলাকার আল নুর ইসলামিক সেন্টার নামের এ মসজিদে হামলার ঘটনাটি ঘটে। এ সময় মুসল্লিরা দ্রুত হামলাকারীকে ধরে ফেলে। গুলিতে আহত ৭৫ বছর বয়সী ওই ব্যক্তির জখম গুরুতর নয় বলে জানা গেছে।

পুলিশ জানায়, প্রায় ২০ বছর বয়সী বন্দুকধারী একজন শ্বেতাঙ্গ যুবক। তাঁকে পৃথক একটি হত্যা মামলায় সন্দেহ করা হচ্ছে বলেও জানিয়েছে পুলিশ।

গতকাল বিকেলে নরওয়ে পুলিশের অসলো অপারেশন সেন্টারের এক টুইটার পোস্টে বলা হয়, মসজিদের ভেতরে গুলির ঘটনা ঘটে। এতে এক ব্যক্তি গুলিবিদ্ধ হন। তবে তাঁর জখম সম্পর্কে বিস্তারিত জানা যায়নি। অপরাধীকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। পুলিশ ঘটনাস্থলে রয়েছে। এ হামলায় আরো কোনো ব্যক্তি জড়িত কি না সে রকম ইঙ্গিত পাওয়া যায়নি।

স্থানীয় সময় বিকেল ৪টার পর ওই হামলার ঘটনা ঘটে। মুসলমানদের পবিত্র ঈদুল আজহার ঠিক এক দিন আগে এ হামলার ঘটনা ঘটল। আজ রবিবার নরওয়েতে ঈদুল আজহা পালিত হবে।

মসজিদের পরিচালক ইরফান মুশতাক নরওয়েজীয় গণমাধ্যমকে বলেন, বন্দকুধারী উর্দি (ইউনিফর্ম) ও হেলমেট পরে এ হামলা চালায়। সে গুলিবর্ষণ শুরু করলেও মসজিদের লোকজন খুব দ্রুত তাকে ধরে ফেলে। তিনি টিভি২-কে বলেন, ওই ব্যক্তি বন্দুক ও পিস্তলের মতো দুটি শটগান বহন করছিল। সে কাচের দরজা ভেঙে গুলি করা শুরু করে।

মসজিদের ওয়েবসাইট সূত্রে জানা গেছে, আল নুর ইসলামিক সেন্টারের ওই ভবনের দ্বিতীয় তলায় নামাজের জন্য দুটি বড় কক্ষ রয়েছে। তৃতীয় ও চতুর্থ তলা ভাড়া দেওয়া অ্যাপার্টমেন্ট। চলতি বছরের শুরুর দিকে নিউজিল্যান্ডের মসজিদে হামলার পর এখানে অতিরিক্ত নিরাপত্তাব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছিল।

আন্তর্জাতিক এর আরো খবর