ওষুধ সেক্টরে একদিন বাংলাদেশ নেতৃত্ব দিবে : স্বাস্থ্যমন্ত্রী

স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম বলেছেন, সেদিন বেশি দূরে নয়, যেদিন ওষুধ সেক্টরে বাংলাদেশ নেতৃত্ব দিবে।
তিনি আজ মঙ্গলবার গোপালগঞ্জে এসেনসিয়াল ড্রাগ কোম্পানি লিমিটেড (ইডিসিএল)-এর তৃতীয় প্রকল্প শুভ উদ্বোধন উপলক্ষে আয়োজিত মতবিনিময় সভায় আরো বলেন, এ প্রকল্প চালু হলে এখান থেকে উৎপাদিত ওষুধ সারাদেশের চাহিদা মিটিয়ে বিদেশে রপ্তানি করা হবে।
আগামী মাসের যেকোন দিন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এই প্রতিষ্ঠান উদ্বোধন করবেন জানিয়ে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রী বলেন, এই প্রকল্পের চারটি ইউনিটের মধ্যে পেনিসিলিন ইউনিটটি সেপ্টেম্বরে ট্রায়াল উৎপাদনে যাবে। আগামী ডিসেম্বর থেকে এটি পূর্ণ মাত্রায় উৎপাদনে যাবে। তাছাড়া অন্য ইউনিটগুলোর পূর্ণ উৎপাদনে যেতে আগামী ডিসেম্বর পর্যন্ত সময় লাগবে। এই ইউনিটে পেনিসিলিন জাতীয় ১২ ধরনের এন্টিবায়োটিক ওষুধ উৎপাদন করা হবে। ইডিসিএল’র নতুন এই কারখানায় ৭৭৮ জনের কর্মসংস্থানের সুযোগ হবে।
তিনি বলেন, বর্তমানে ইডিসিএল সরকারি স্বাস্থ্য প্রতিষ্ঠানের মোট ওষুধের চাহিদার ৭২ শতাংশ সরবরাহ করে থাকে। এই কারাখানা উৎপাদন প্রক্রিয়া পূর্ণমাত্রায় শুরু হলে শতভাগ ওষুধ সরবরাহ এখান থেকে সম্ভব হবে।
উল্লেখ্য ২০১৫ সালে এটির নির্মাণ কাজ শুরু হয়। দক্ষিণ এশিয়ার অন্যতম বৃহৎ সরকারি এই ওষুধ উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠান ৭শ’কোটি টাকা ব্যয়ে নির্মাণ করা হয়েছে। এই পুরো ব্যয় বহন করা হচ্ছে সরকারি অর্থায়নের মাধ্যমে।
মতবিনিময় সভায় আরো উপস্থিত ছিলেন তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু, সাম্যবাদী দলের সাধারণ সম্পাদক দিলীপ বড়–য়া, ইডিসিএল’র ব্যবস্থাপনা পরিচালক অধ্যাপক ডা. এহসানুল কবির জগলুলসহ স্থানীয় আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দ প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।
পরে গোপালগঞ্জের সার্কিট হাউসে পাঁচ জেলার স্বাস্থ্য কর্মকর্তাদের সঙ্গে বৈঠকে করেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম। ফরিদপুর, গোপালগঞ্জ, মাদারিপুর, রাজবাড়ি ও শরীপুরজেলায় কর্মরত স্বাস্থ্য কর্মকর্তাদের সঙ্গে বৈঠককালে মোহাম্মদ নাসিম বলেন, বর্তমান সরকারের সময় স্বাস্থ্যসেবার ক্ষেত্রে অভূতপূর্ব উন্নয়ন ঘটেছে। তৃণমূলে স্বাস্থ্য সেবা পৌঁছে দেওয়ার ক্ষেত্রে হেলথ কমিউনিটি ক্লিনিক এখন বিশ্বে মডেলে পরিণত হয়েছে।

স্বাস্থ্য এর আরো খবর