বাংলাদেশ-মালদ্বীপ যৌথ কমিশন গঠন করা হবে

বাংলাদেশ-মালদ্বীপের মধ্যে দ্বিপক্ষীয় স্বার্থ সংশ্লিষ্ট সকল বিষয়ে এগিয়ে নিতে যৌথ কমিশন গঠন করা হবে।
 
মঙ্গলবার (৯ ফেব্রুয়ারি) বাংলাদেশ ও মালদ্বীপের পররাষ্ট্রমন্ত্রীর বৈঠক শেষে পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন সাংবাদিকদের এসব বলেন। রাষ্ট্রীয় অতিথি ভবন পদ্মায় এ বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়।
 
 
বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড.এ কে আবদুল মোমেন এবং মালদ্বীপের পররাষ্ট্রমন্ত্রী আবদুল্লা শহীদ নিজ নিজ দেশের পক্ষে এ বৈঠকে নেতৃত্ব দেন।
 
ড. এ কে আব্দুল মোমেন বলেন, মালদ্বীপে কর্মরত সকল বাংলাদেশি প্রবাসী কর্মীদের বিনামূল্যে টিকা দেবে বলে দেশটির প্রেসিডেন্ট ঘোষণা করেছে।
 
পররাষ্ট্রমন্ত্রী জানান, বৈঠকে দু'দেশের সম্পর্কের পারস্পরিক স্বার্থের বিষয়ে আলোচনা হয়েছে। মালদ্বীপ বাংলাদেশ থেকে নার্স নেওয়ার কথা জানিয়েছে বলে তিনি জানান।
 
বাংলাদেশ ফরেন সার্ভিস একাডেমি এবং মালদ্বীপের ফরেন সার্ভিস ইনস্টিটিউটের মধ্যে সহযোগিতার বিষয়ে একটি সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষর করে।
 
বাংলাদেশ এবং মালদ্বীপের মধ্যে দ্বিপক্ষীয় সম্পর্ক রয়েছে যা বছরের পর বছর ধরে আরও জোরদার হয়েছে। প্রায় ৮০ হাজার বাংলাদেশি প্রবাসী শ্রমিক বর্তমানে সে দেশে কাজ করছেন।
 
মালদ্বীপের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. আব্দুল্লাহ শহিদ বলেন, বাণিজ্য, বিনিয়োগ, স্বাস্থ্যসেবা, শিক্ষাসহ দ্বিপাক্ষিক সকল বিষয়ে বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে ফলপ্রসূ আলাপ হয়েছে। আরও কোন কোন বিষয়ে আমাদের সম্পর্ক আরও দৃঢ় করা যায়, সে বিষয়েও আলাপ করেছি। মালদ্বীপের মেডিকেল শিক্ষার্থীদের পড়াশোনার ক্ষেত্রে প্রথম পছন্দ হচ্ছে বাংলাদেশ।
 
ড. আব্দুল্লাহ শহিদ বলেন, দুইটি বিষয়ে সমাঝোতা স্বাক্ষর করার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। একটি মানবসম্পদ উন্নয়ন সংক্রান্ত এবং অন্যটি বাংলাদেশ ফরেন সার্ভিস একাডেমি এবং মালদ্বীপের ফরেন ইন্সটিটিউটের মধ্যে একটি সমাঝোতা স্মারক স্বাক্ষর।
 
মালদ্বীপের পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশি কর্মীরা মালদ্বীপে খুব গুরুত্বপূর্ণ এবং ভালো কাজ করছে। মালদ্বীপ সরকার তাদের অধিকার এবং স্বার্থ রক্ষায় সকল সমর্থন দিয়ে যাবে। কিন্তু মালদ্বীপে অনিয়মিত বাংলাদেশি কর্মীদের নিয়মিত হওয়া প্রয়োজন। শান্তি, প্রগতি এবং টেকসই উন্নয়নের জন্য আমরা একসঙ্গে কাজ করতে চাই। নিয়মিত অভিবাসন নিশ্চিতে মালদ্বীপ-বাংলাদেশ একসঙ্গে কাজ করবে বলে আমরা সম্মত হয়েছি। অনিয়মিত অভিবাসীরা স্বেচ্ছায় বাংলাদেশে ফিরতে চাইলে মালদ্বীপ সহযোগিতা করবে।
 
রোহিঙ্গা সঙ্কট সমাধান এবং জলবায়ু সংক্রান্ত ঝুঁকি মোকাবিলায় আঞ্চলিক এবং বৈশ্বিক অঙ্গণে বাংলাদেশের পক্ষে মালদ্বীপের সমর্থন অব্যাহত থাকবে বলে ঢাকা সফররত পররাষ্ট্রমন্ত্রী জানান।

সর্বশেষ সংবাদ

পররাষ্ট্র ও বাংলাদেশ এর আরো খবর