হায়দরাবাদ হাউজে আজ হাসিনা-মোদি বৈঠক

কানেকটিভিটি বা সংযুক্তি ও দ্বিপক্ষীয় বাণিজ্যের প্রতি গুরুত্ব দিয়ে আজ ভারতের রাজধানী নয়া দিল্লিতে হায়দরাবাদ হাউজে বৈঠকে বসছেন বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। এ সময়ে ৬ থেকে ৭টি সমঝোতা স্বারক স্বাক্ষরিত হওয়ার কথা রয়েছে। এর মধ্য দিয়ে দুই দেশের মধ্যকার দ্বিপক্ষীয় সম্পর্ককে নতুন পর্যায়ে নিয়ে যাওয়ার লক্ষ্য নেয়া হয়েছে। এর আগে ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র রভিশ কুমার সাংবাদিকদের বলেছেন, কানেকটিভিটি, ক্যাপাসিটি বিল্ডিং এবং সাংস্কৃতিক বিষয়ের ওপর ওই সমঝোতা স্বারক। এ খবর দিয়েছে অনলাইন ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস।

জাতিসংঘ সাধারণ অধিবেশনের ফাঁকে এই দু’নেতার সাক্ষাতের এক সপ্তাহ পর আজকের এই বৈঠক হতে যাচ্ছে। ওয়ার্ল্ড ইকোনমিক ফোরামের ইন্ডিয়া ইকোনমিক সামিটে যোগ দিতে চার দিনের রাষ্ট্রীয় সফরে ভারতে অবস্থান করছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সূত্রের উদ্ধৃতি দিয়ে ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বলছে, আজকের বৈঠকের মুলে থাকবে বাংলাদেশের সঙ্গে সম্পর্ককে আরও উন্নত করা। ভারত ও বাকি বিশ্বের সঙ্গে অর্থনৈতিক সম্পর্ককে উন্নত করা। অন্যদিকে বাংলাদেশী একজন কর্মকর্তা বলেছেন, প্রধানমন্ত্রীর এই সফর ওয়ার্ল্ড ইকোনমিক ফোরামে যোগ দেয়াকে কেন্দ্র করে। তবে এর মধ্যে দ্বিপক্ষীয় এই বৈঠক রয়েছে। অবশ্যই এটা কোনো দ্বিপক্ষীয় সফর নয়।

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস লিখেছে, বৃহস্পতিবার বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী বলেছেন আসামের এনআরসি নিয়ে তার কোনো সমস্যা নেই। মোদির সঙ্গে তিনি সর্বশেষ যে বৈঠক করেছেন সেখানে তাকে নিশ্চয়তা দিয়েছেন মোদি। এতে তিনি সন্তুষ্ট। গত সপ্তাহে নিউ ইয়র্কে এই দুই নেতার সর্বশেষ বৈঠক হয়। সেখানে মোদিকে হাসিনা বলেছেন, এনআরসি বাংলাদেশের জন্য একটি গভীর উদ্বেগের বিষয়। জবাবে মোদি বলেছেন, যেহেতু ভারত ও বাংলাদেশের মধ্যে ভাল সম্পর্ক বিদ্যমান তাই উদ্বিগ্ন হওয়ার কিছু নেই। এ সময় ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস প্রধানমন্ত্রী হাসিনার কাছে জানতে চায়, তিনি কি মোদির নিশ্চয়তায় সন্তুষ্ট। জবাবে হাসিনা বলেন, অবশ্যই।

এখানে উল্লেখ্য, সম্প্রতি ভারত পিয়াজ রপ্তানি বন্ধ করে দিয়েছে। শুক্রবার দিল্লিতে দর্শক শ্রোতাদের এ বিষয়ে হাসিনা বলেছেন, এতে বাংলাদেশের মানুষকে দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে। যদি এমন পদক্ষেপ নেয়ার আগে নয়া দিল্লি ঢাকাকে অবহিত করতো তাহলে তা হতো সহায়ক। বাংলাদেশে পিয়াজের দাম আকাশ ছুঁইছে। এক পর্যায়ে হাসিনা বলেন, তিনি তার রাঁধুনিকে বলে দিয়েছেন রান্নায় পিয়াজ ব্যবহার না করতে।

পররাষ্ট্র ও বাংলাদেশ এর আরো খবর