রোহিঙ্গা সংকটের টেকসই সমাধান নিয়ে আলোচনা

মিয়ানমার থেকে বাস্তুচ্যুত হয়ে ১০ লাখের বেশি রোহিঙ্গার বাংলাদেশে আশ্রয় নেওয়ার ঘটনায় যে মানবিক ও রাজনৈতিক সংকটের সৃষ্টি হয়েছে তার টেকসই ও আশু সমাধানের উপায় নিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও জাপানের প্রধানমন্ত্রী শিনজো আবে আলোচনা করেছেন। শেখ হাসিনা জানান, জাপান বুঝতে পেরেছে যে এ সংকটের সমাধান বাস্তুচ্যুত মানুষগুলোর নিজ দেশ মিয়ানমারে দ্রুত, নিরাপদ ও মর্যাদার সঙ্গে ফেরার মধ্যে নিহিত রয়েছে। প্রধানমন্ত্রী বলেন, বাস্তুচ্যুত মানুষগুলোর ফেরার জন্য মিয়ানমারের দরকার তাদের রাখাইন রাজ্যে অনুকূল পরিবেশ তৈরি করা। ‘এ সংকট সামাল দেওয়ায় উদার সমর্থন এবং বাস্তুচ্যুত মানুষদের মিয়ানমারে দ্রুত প্রত্যাবাসনে প্রচেষ্টার জন্য আমি জাপান সরকারকে ধন্যবাদ জানাই,’ বলেন শেখ হাসিনা। এদিকে, শেখ হাসিনা ও শিনজো আবে বাংলাদেশ-জাপান সম্পর্ককে সহযোগিতা ও অংশীদারির নতুন উচ্চতায় উন্নীত করার বিষয়ে তাদের অঙ্গীকার পুনর্ব্যক্ত করেছেন। জাপান সফররত শেখ হাসিনা আজ বুধবার এক যৌথ সংবাদ সম্মেলনে বলেন, দুই দেশের জনগণ ও সরকারের মধ্যে বিদ্যমান চমৎকার বোঝাপড়া ও বন্ধুত্বের কল্যাণে এসব কিছু অর্জন করা যাবে বলে তিনি বিশ্বাস করেন। বাংলাদেশে অবকাঠামো উন্নয়ন ও বিনিয়োগ প্রসারে ২৫০ কোটি মার্কিন ডলারের ৪০তম ওডিএ ঋণ প্যাকেজ সই অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন শেখ হাসিনা ও শিনজো আবে। এ ঋণ প্যাকেজের জন্য আবেকে ধন্যবাদ জানান শেখ হাসিনা।

পররাষ্ট্র ও বাংলাদেশ এর আরো খবর