ডিএনএ পরীক্ষার জন্য নেপালে গেল চিকিৎসক দল

কাঠমান্ডুতে ইউএস-বাংলা এয়ারলাইনসের উড়োজাহাজ দুর্ঘটনায় নিহত ব্যক্তিদের পরিচয় শনাক্ত করা এবং আহত ব্যক্তিদের চিকিৎসার জন্য চিকিৎসকদের আট সদস্যের একটি প্রতিনিধিদল নেপালে গেল। বৃহস্পতিবার বেলা ১১টা ৫ মিনিটে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইনসের একটি ফ্লাইটে তারা নেপালের উদ্দেশে রওনা হন।

ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইউনিটের সমন্বয়ক ডা. সামন্তলাল সেন জানিয়েছেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে বাংলাদেশ থেকে একটি চিকিৎসক দল উড়োজাহাজ বিধ্বস্ত হওয়ার ঘটনায় আহত হয়ে চিকিৎসাধীন রোগীদের দেখতে এবং তাদের চিকিৎসার ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নিতে নেপালে গেছেন।

চিকিৎসক দলে হাসপাতালের ফরেনসিক মেডিসিন বিভাগের প্রধান ডা. সোহেল মাহামুদ, বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইউনিটের সহযোগী অধ্যাপক ডা. লুৎফর কাদের লেলিন, ডা. হোসেন ইমাম, ডা. মনসুর রহমান, জাতীয় অর্থোপেডিক হাসপাতালের (পঙ্গু হাসপাতাল) ডা. মুশফিকুর রহমান লিটন, ডা. রিয়াদ মজিদ, ঢামেক হাসপাতালের ফেরদৌস রহমান ও ডা. আবদুল্লাহ আল মামুন। চিকিৎসকদের পাশাপাশি সেখানে সিআইডির দুজন সদস্যও থাকবেন। তাঁরা হলেন এডিশনাল সুপারিনটেনডেন্ট অব পুলিশ (ক্রাইম সিন, সিআইডি) আবদুস সালাম ও অ্যাসিস্ট্যান্ট ডিএনএ স্পেশালিস্ট (সিআইডি) আশরাফুল আলম।

ফরেনসিক মেডিসিন বিভাগের প্রধান ডা. সোহেল মাহামুদ জানান, নেপালে প্লেন দুর্ঘটনায় নিহতদের ময়নাতদন্তের সময় মৃতদেহগুলোর অবস্থা বুঝে কোথা থেকে ডিএনএ নমুনা সংগ্রহ করা হবে, তা তখন সিদ্ধান্ত নেয়া হবে। এ জন্য বাংলাদেশ থেকে যন্ত্রপাতি সংগ্রহ করে নেয়া হচ্ছে। সবকিছু ঠিক থাকলে একদিনেই মৃতদেহগুলোর ময়নাতদন্ত ও ডিএনএ নমুনা সংগ্রহের কাজ শেষ করা হবে।

পররাষ্ট্র ও বাংলাদেশ এর আরো খবর