বিশ্বে দেশের এক কোটি অভিবাসী রয়েছেন: পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী
খবরের অন্তরালে প্রতিবেদক :

বিশ্বে বাংলাদেশের এক কোটি অভিবাসী রয়েছেন। তারা বৈদেশিক মুদ্রা পাঠিয়ে দেশের অর্থনীতি শক্তিশালী করে চলেছেন বলে মন্তব্য করেছেন পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী মো. শাহরিয়ার আলম। আজ বুধবার রাজধানীর সিরডাপ মিলনায়তনে বিশ্ব পরিমণ্ডলে নিরাপদ সুশৃঙ্খল ও নিরাপদ অভিবাসন বিষয়ক আন্তঃসরকার আলোচনা অনুষ্ঠানে বক্তৃতা করছিলেন প্রতিমন্ত্রী। অনুষ্ঠানটির আয়োজন করে পার্লামেন্টারিয়ানস ককাস অন মাইগ্রেশন অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট। সঞ্চালনা করেন সংস্থাটির সভাপতি ইসরাফিল আলম। শাহরিয়ার আলম বলেন, অভিবাসীদের স্বার্থ সংরক্ষণে সরকার কাজ করে যাচ্ছে। জাতিসংঘে বাংলাদেশ এ বিষয়ে নীতিমালা তৈরি করতে সবচেয়ে সোচ্চার। সৌদি আরব, মালয়েশিয়া, ওমানে অভিবাসীদের বিষয়ে যে সংকট ছিল, তার সমাধান হয়েছে জানিয়ে প্রতিমন্ত্রী বলেন, অনিয়মিত অভিবাসন বলে কিছু নেই, ফ্রি-ভিসা বলে কিছু নেই। দালাল চক্র মিথ্যা বলে এমন ভিসা দিয়ে সংকট সৃষ্টি করেছে সংযুক্ত আরব আমিরাতে। সংযুক্ত আরব আমিরাত ধাপে ধাপে বাংলাদেশিদের জন্য শ্রমবাজার উন্মুক্ত করবে। এ বিষয়ে দেশটির পররাষ্ট্রমন্ত্রী ঢাকাকে চিঠিও দিয়েছেন। চিঠিতে দেশটির পররাষ্ট্রমন্ত্রী জানিয়েছেন, ধাপে ধাপে তারা বাংলাদেশ থেকে কিছু নারী ও পুরুষ গৃহকর্মী নেবেন। কিছু চিকিৎসক ও প্রকৌশলীও নেবেন। আর যারা আছে, তারা কাজের অনুমতিপত্র বা আকামা পরিবর্তন করতে পারবে। অভিবাসন বিশেষজ্ঞ সৈয়দ সাইফুল হক বলেন, বিশ্বে বর্তমানে ২৬ কোটি অভিবাসী রয়েছে। এই সংখ্যা প্রতিনিয়ত বাড়ছে। অভিবাসী বৃদ্ধির হার বিশ্ব জন্মহারের চেয়ে অনেক বেশি। গত দশ বছরে ১০ কোটি মানুষ অভিবাসী হয়েছে। তার মধ্যে এশিয়ায় সবচেয়ে বেশি, প্রায় আট কোটি। অধিকাংশ অভিবাসী গরিব দেশ থেকে গরিব দেশে গেছেন।

সর্বশেষ সংবাদ

পররাষ্ট্র ও বাংলাদেশ এর আরো খবর