জাতিসংঘ মহাসচিবের সঙ্গে অর্থমন্ত্রীর সাক্ষাৎ
খবরের অন্তরালে প্রতিবেদক :

যুক্তরাষ্ট্র সফররত অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত গতকাল সোমবার জাতিসংঘ মহাসচিব আন্তোনিও গুতেরেজ, ইউএনডিপির প্রশাসক আকিম স্টেইনার এবং জাতিসংঘের আন্ডার সেক্রেটারি জেনারেল মিজ্ ফেকিতামইলোয়া কাতোয়া ইউটোইকামানু এর সাথে সাক্ষাৎ করেছেন। নিউইয়র্কস্থ জাতিসংঘের সদরদফতরে জাতিসংঘ মহাসচিবের কার্যালয়ে মহাসচিব আন্তোনিও গুতেরেজের সাথে অর্থমন্ত্রীর সাক্ষাতের সময় উপস্থিত ছিলেন জাতিসংঘে নিযুক্ত বাংলাদেশের স্থায়ী প্রতিনিধি ও রাষ্ট্রদূত মাসুদ বিন মোমেন, অর্থনৈতিক সম্পর্ক বিভাগের সচিব কাজী শফিউল আজম, পরিকল্পনা কমিশনের সদস্য শামসুল আলম ও বাংলাদেশ মিশনের ইকোনমিক মিনিস্টার ইকবাল আব্দুল্লাহ হারুনসহ ৬ সদস্যের বাংলাদেশ প্রতিনিধি দল। অত্যন্ত হৃদ্যতাপূর্ণ পরিবেশে অনুষ্ঠিত এ সাক্ষাতের সময় অর্থমন্ত্রী রোহিঙ্গা ইস্যুতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার পরামর্শ অনুযায়ী একটি সেফ জোন গঠনসহ এ সঙ্কটের দ্রুত ও স্থায়ী সমাধানে জাতিসংঘের সার্বিক সহযোগিতা কামনা করেন। তিনি জাতিসংঘ মহাসচিবকে যতদ্রুত সম্ভব বাংলাদেশ সফরের আহ্বান জানান। রোহিঙ্গা ইস্যুতে মহাসচিব গুতেরেজ জানান, বিষয়টি তিনি পর্যবেক্ষণ করছেন। অধিক জনসংখ্যার দেশ হয়েও বাংলাদেশ এই বিশাল রোহিঙ্গা শরণার্থীদেরকে দীর্ঘদিন ধরে মানবিক সহযোগিতা দিয়ে যাচ্ছে যা তাকে মুগ্ধ করছে বলে তিনি উল্লেখ করেন। গুতেরেজ এই মানবিক সহযোগিতা প্রদানের জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও তার সরকার এবং বাংলাদেশের জনগণকে আন্তরিক ধন্যবাদ জানান।
 
মহাসচিব আরো জানান, শরণার্থী বিষয়ক পূর্ববর্তী অভিজ্ঞতার আলোকে তিনি বর্তমান রোহিঙ্গা শরণার্থী সম্পর্কে ওয়াকিবহাল এবং এ সঙ্কট সমাধানে জাতিসংঘের যা করণীয় তা তারা করে যাচ্ছেন। তিনি বিশেষ করে এ বিষয়ে তার সর্বোচ্চ প্রচেষ্টার নিশ্চয়তা দেন। সাক্ষাৎকালে অর্থমন্ত্রী জাতিসংঘ মহাসচিব হিসেবে দায়িত্বভার গ্রহণের জন্য আন্তোনিও গুতেরেজকে অভিনন্দন জানান। তিনি বিশ্বব্যাপী চলমান সংকট, সহিংসতা ও চ্যালেঞ্জ মোকাবিলা, পরিবেশগত উন্নয়ন এবং মানবিক সহযোগিতা প্রদানসহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে বর্তমান মহাসচিবের গতিশীল নেতৃত্বে জাতিসংঘ আরো কার্যকর ভূমিকা পালন করবে মর্মে আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

পররাষ্ট্র ও বাংলাদেশ এর আরো খবর