বৈশ্বিক সক্ষমতার সূচকে ৭ ধাপ এগোল বাংলাদেশ
খবরের অন্তরালে প্রতিবেদক :

বৈশ্বিক প্রতিযোগিতার সক্ষমতায় প্রথমবারের মতো একশর ঘরে ঢুকল বাংলাদেশ। সাত ধাপ উন্নতি করে বাংলাদেশ উঠে এসেছে সূচকের ৯৯তম অবস্থানে। 

আজ বুধবার দুপুরে রাজধানীর সিরডাপ মিলনায়তনে বিশ্ব অর্থনৈতিক ফোরামের এই প্রতিবেদন প্রকাশ করে সেন্টার ফর পলিসি ডায়ালগ (সিপিডি)। 

বিশ্বের ১৩৭টি দেশে ১২টি সূচকের ওপর চালানো জরিপের প্রতিবেদন তুলে ধরার জন্য সংবাদ সম্মেলনে সিপিডি জানায়, গত পাঁচ বছরে এই সূচকে ১৯ ধাপ উন্নতি করেছে বাংলাদেশ। গত বছর এই সূচকে বাংলাদেশের অবস্থান ছিল ১০৬তম। ব্যবসা-বাণিজ্যের মৌলিক প্রয়োজনগুলোর মধ্যে প্রাতিষ্ঠানিক, অবকাঠামো, অর্থনৈতিক স্থিতিশীলতা এবং স্বাস্থ্য ও প্রাথমিক শিক্ষায় এগিয়েছে বাংলাদেশ। 

সিপিডির সম্মানিত ফেলো ড. মোস্তাফিজুর  রহমান বলেন, ‘প্রযুক্তিগত আমাদের যে প্রস্তুতি এবং দক্ষতা, লেবার মার্কেট বলি, ক্যাপিটাল মার্কেট বলি বেসিক কিছু ইনফ্রাস্ট্রাকচার হয়েছে। কিন্তু সেসব জায়গায় উৎকর্ষতা এবং সার্ভিস ডেলিভারি যেসব প্রতিষ্ঠান আছে, তার প্রাতিষ্ঠানিক সক্ষমতা এগুলোর সম্বন্ধে কিন্তু খুব ভালো স্কোর আসেনি। কিন্তু আগামীতে বাংলাদেশকে যদি সামনের দিকে যেতে হয়, তখন কিন্তু আমাদেরকে ওগুলোতে ভালো না করলে আমরা আর অগ্রসর হতে পারব না।’

আর ব্যবসা-বাণিজ্যের ক্ষেত্রে যে ১৬টি অন্তরায় চিহ্নিত করা হয়েছে প্রতিবেদনটিতে। তাতে বলা হয়েছে, দুর্নীতিই বাংলাদেশে এখন প্রথম  সমস্যা; যা গত বছর ছিল দ্বিতীয় অবস্থানে। তারপরই রয়েছে অপর্যাপ্ত অবকাঠামো, আমলাতান্ত্রিক জটিলতা, অদক্ষ শ্রমিক ও তাদের কাজের প্রতি নৈতিক দায়বদ্ধতার অভাব।

বৈশ্বিক এ সূচকে গতবারের মতো এবারও এক নম্বর দেশ সুইজারল্যান্ড, সিঙ্গাপুরকে তিনে নামিয়ে দিয়ে দ্বিতীয় অবস্থানে উঠে এসেছে যুক্তরাষ্ট্র। দক্ষিণ এশিয়ার অন্যান্য দেশের মধ্যে ভারত একধাপ অবনতি হয়ে ৪০-এ থাকলেও ১১৫তম অবস্থানে থাকা পাকিস্তানের উন্নতি ঘটেছে সাত ধাপ।

অর্থ ও বাণিজ্য এর আরো খবর