দুর্নীতির ভূত যেনো সরকারের সাফল্যকে ম্লান করে দিতে না পারে

দেশের বিভিন্ন সেবা খাতের মধ্যে পাসপোর্ট বিভাগ সবচেয়ে বেশি দুর্নীতিগ্রস্ত বলে জানিয়েছে ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশ (টিআইবি)। প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়, সেবাখাতে সবচেয়ে দুর্নীতিগ্রস্ত পাসপোর্ট বিভাগ। দুর্নীতিতে এর পরের অবস্থানেই রয়েছে আইনশৃঙ্খলা ও শিক্ষাখাত।
ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশ (টিআইবি) প্রতিবেদনে দাবী মোতাবেক সেবাখাতে সবচেয়ে দুর্নীতিগ্রস্ত পাসপোর্ট বিভাগ এর পরের অবস্থানেই রয়েছে আইনশৃঙ্খলা ও শিক্ষাখাত। এই তথ্য যদি সঠিক হয় যে ২য় ও ৩য় স্থানে  আইনশৃঙ্খলা ও শিক্ষাখাত বেশী দুনীতিগ্রস্থ।  তা হলে বিষয়টি ভয়াবহ ! কারণ দেশের সুস্থ পরিবেশ ও শান্তি-শৃঙ্খলা নিশ্চিত করতে হলে দুর্নীতিগ্রস্ত আইনশৃঙ্খলায় নিয়েজিত সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠানের পক্ষে শান্তি-শৃঙ্খলা নিশ্চিত করা সম্ভব নয় ! তেমনি শিক্ষাখাত উন্নয়ন পরিচালনায় নিয়োজিত সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠান সমূহের পক্ষে সুশিক্ষা নিশ্চিত করাও অসম্ভব !
 
রাজধানীর ধানমন্ডিতে প্রকাশিত ‘সেবা খাতে দুর্নীতি জাতীয় খানা জরিপ ২০১৫’ বিষয়ক প্রতিবেদনে সংস্থাটির টিআইবির চেয়ারপারসন সুলতানা কামাল দাবি করেন যে, দুর্নীতিকে উচ্চতর পর্যায় থেকে আশ্রয়-প্রশ্রয় না দিয়ে টিআইবির পরামর্শ গ্রহণ করা হলে দেশে দুর্নীতি কমে যেতো! টিআইবির নির্বাহী পরিচালক ইফতেখারুজ্জামানএর মতে, সেবা খাতকে দুর্নীতিমুক্ত করতে হলে রাজনৈতিক প্রভাবমুক্ত করলে এর সুফল জনগণ পর্যন্ত পৌঁছুবে। 
প্রতিবেদনে আরও বলা হয় যে, পাসপোর্ট সেবা নিতে গিয়ে প্রায় ৭৭ শতাংশ মানুষকেই দুর্নীতি ও ঘুষের শিকার হতে হয় । ২০১৫ সালে  মোট ঘুষের পরিমাণ প্রায় আট হাজার ৮২২ কোটি টাকা। যা ২০১৪-১৫ অর্থবছরের বাজেটের ৩.৭ শতাংশ।
 
আমরা মনে করি, একটা অশুভ-শক্তি দেশকে যে অস্থিতিশীল পরিস্থিতির মধ্যে নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করেছিল, বর্তমান প্রধানমন্ত্রী কঠোর হাতে তা দমন করে দেশের আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক ও শান্তিপূর্ণ করতে সমর্থ হয়েছেন ! এছাড়াও শিক্ষা-ক্ষেত্রেও ব্যাপক অগ্রগতি দৃশ্যমান! এমতাবস্থায় দুর্নীতির ফাঁক-ফোকরে কোনো অশুভ শক্তি যেন দেশের প্রধান দুই স্তম্ভের ক্ষতি করতে না পারে, সে বিষয়ে সরকারকে সদা সতর্ক থাকতে হবে ! তা ছাড়া দুর্নীতির ভূত যেনো স্বস্ব-ক্ষেত্রে সরকারের সাফল্যকে ম্লান করে দিতে না পারে-- সে বিষয়েও কঠোর নজরদারী ও আনিয়ম প্রতিরোধ করা সরকার, দেশ ও জাতীয় কল্যাণের জন্য জরুরী !