বেঁধে দেওয়া দামে ভোজ্য তেল বিক্রি নিশ্চিত করা হবে: বাণিজ্যমন্ত্রী

‘অত্যাবশ্যকীয় পণ্য বিপণন সংক্রান্ত্র সরকারি ও ব্যবসায়ী সংগঠনের সমন্বয়ে গঠিত জাতীয় কমিটি’ ভোজ্য তেলের মূল্য নির্ধারণ করেছে বলে জানিয়েছেন বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি। তিনি বলেন, ‘নির্ধারিত মূল্যে ভোজ্য তেল বিক্রয় নিশ্চিত করা হবে।’
 
বুধবার (১৭ ফেব্রুয়ারি) বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে  জাতীয় কমিটির সভা শেষে  মন্ত্রী এসব কথা বলেন।
 
 
বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন,‘আন্তর্জাতিক বাজারে ভোজ্য তেলের মূল্য কিছুটা বেড়েছে। সার্বিক পরিস্থিতি বিবেচনায় নিয়ে জাতীয় কমিটি ভোজ্য তেলের প্রতি লিটার সয়াবিন (খোলা) মিলগেটে ১০৭ টাকা, পরিবেশক মূল্য ১১০ টাকা ও খুচরা মূল্য ১১৫ টাকা। প্রতিলিটার বোতলজাত সয়াবিন মিলগেট মূল্য ১২৩ টাকা পরিবেশক মূল্য ১২৭ টাকা ও খুচরা বিক্রয় মূল্য ১৩৫ টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে।’
 
টিপু মুনশি বলেন, ‘এছাড়া পাঁচ লিটার বোতলজাত সয়াবিন মিলগেট মূল্য ৫৯০ টাকা, পরিবেশক মূল্য ৬১০ টাকা ও খুচরা বিক্রয় মূল্য ৬৩০ টাকা। প্রতিলিটার পাম সুপার (খোলা)  মিলগেট মূল্য ৯৫ টাকা, পরিবেশক মূল্য ৯৮ টাকা ও খুচরা বিক্রয় মূল্য ১০৪ টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে।’
 
মন্ত্রী বলেন,‘পবিত্র রমজান মাসকে সামনে রেখে পর্যাপ্ত মজুদ সৃষ্টি করতে হবে, যেন কোনো0 অবস্থাতেই নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের সংকট না হয়। এজন্য সরকার প্রয়োজনীয় সব ধরনের সহযোগিতা দেবে। এছাড়া আন্তর্জাতিক বাজার দরের সঙ্গে সামঞ্জস্য রেখে নিয়মিত সভা করে ভোজ্য তেলের দাম পুনঃনির্ধারণ করা হবে।’
 
 
বাণিজ্য সচিব ড. মো. জাফর উদ্দীনের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদফতরের মহাপরিচালক বাবলু কুমার সাহা, বাংলাদেশ ট্রেড অ‌্যান্ড টেরিফ কমিশনের সদস্য (বাণিজ্যনীতি) আবু রায়হান আলবেরুনী, বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব (রপ্তানি) মো. হাফিজুর রহমান প্রমুখ। 

সর্বশেষ সংবাদ

অর্থ ও বাণিজ্য এর আরো খবর