সোনারগাঁওয়ে বাস-লরি সংঘর্ষে নিহত ১০
খবরের অন্তরালে প্রতিবেদক :

নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁও উপজেলায় যাত্রীবাহী বাস ও লরির সংঘর্ষে ১০ জন নিহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। এতে আহত হয়েছেন কমপক্ষে ২৭ জন। সোমবার দুপুর পৌনে ২টার দিকে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের উপজেলার ত্রিবর্দী এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। তবে নিহতের সংখ্যা আরো বাড়তে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

নিহতদের মধ্যে ইয়াসমিন নামে একজনের নাম জানা গেছে। সে অনন্ত ট্রেডিং গার্মেন্টসের শ্রমিক।

পুলিশ প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, ঢাকা থেকে চট্টগ্রাম গামী এমডি ইয়াসিন নামে একটি যাত্রীবাহী বাসের (ঢাকা-মেট্রো-ব-১৪-০৮২৬) চালক নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে উপজেলার ত্রিবর্দী এলাকায় দাঁড়িয়ে থাকা লরির (ঢাকা-মেট্রো-ঢ-৮১-০২৭৯), পেছনে সজোরে ধাক্কা দেয়। এতে যাত্রীবাহী বাসটি দুমড়ে মুচড়ে গিয়ে ঘটনাস্থলেই ২ শিশু, ২ নারী ও ৪ পুরুষ নিহত হন। এ সময় আহত হয় কমপক্ষে ২৭ জন। আহতদের উদ্ধার করে হাসপাতালে নেয়ার পথে আরও ২ জনের মৃত্যু হয়। কাঁচপুর হাইওয়ে থানার ওসি মো. কাইয়ুম আলী সরদার বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, সোমবার দুপুর পৌনে ২টার দিকে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের ত্রিবর্দী এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। এতে ঘটনাস্থলেই ৮ জন নিহত হন। আহত হয় কমপক্ষে ২৭ জন। নিহতদের মধ্যে চারজনের লাশ সোনারগাঁও উপজেলা স্বাস্থ্যকেন্দ্রে রাখা হয়েছে। ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়ার পর বাকি চারজনের মৃত্যু হয়। নিহতের সংখ্যা আরও বাড়তে পারে। গুরুতর আহত কয়েকজনকে ঢামেকসহ আশেপাশের বিভিন্ন হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে বলে জানান তিনি। নিহতদের মধ্যে ২ জনের লাশ স্বজনরা নিয়ে গেছে। তার মধ্যে একজনের নাম ইয়াসমিন।

সোনারগাঁও থানার ওসি মোরশেদ আলম জানান, মুমুর্ষু আহতদের মধ্যে অনেকেই মারা যেতে পারেন। অন্যদিকে খবর পেয়ে নারায়ণগঞ্জ জেলা পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (অপরাধ) মো. মতিয়ার রহমান ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।

সর্বশেষ সংবাদ

দুর্ঘটনা এর আরো খবর